সত্যিকারের যৌন দৃশ্যের হোম মেড ভিডিও প্রকাশ করতে লোপেজের ‘না′ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 02.12.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সত্যিকারের যৌন দৃশ্যের হোম মেড ভিডিও প্রকাশ করতে লোপেজের ‘না'

সাবেক স্বামীর সঙ্গে ১১ মাস ঘর করার সময়ে তাদের শারীরিক মিলন এবং অন্যান্য যৌন দৃশ্য নিয়ে তৈরি হোম ভিডিও বাজারে ছাড়া আটকাতে এবার আদালতে মামলা ঠুকলেন গায়িকা-নায়িকা জেনিফার লোপেজ৷

default

আদালতে যেতে হল লোপেজকে

হঠাৎ দেখায় কিউবার নাগরিক মায়ামির এক হোটেলের বেয়ারা ওজানি নোয়াকে ভালোবেসে ফেলেছিলেন পপ গানের এই শিল্পী৷ তারপর আর বেশি দিন অপেক্ষা করেন নি৷ ১৯৯৭ সালেই তিনি বিয়ে করে এক প্রকার আলোচনার ঝড় তোলেন৷ প্রথম দিকে নিজেদের সুখী সুখী একটা চেহারা করে রাখলেও, মাস ছয়েকের মধ্যে জেনিফার দেখলেন দুজনেতে বেশ অমিল - মতের, পছন্দের, কথার৷ তাই দুজনই সিদ্ধান্ত নেন ছাড়াছাড়ির৷ শেষ পর্যন্ত বিবাহ বিচ্ছেদ৷

Tom Cruise Jennifer Lopez Flash-Galerie

অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ভিডিও’র ফলে সমস্যায় পড়েছেন জেনিফার

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড সান জানাচ্ছে, সেই এক বছরের একটু কম সময়ে ঘরে বাইরে নিজেদের নানা অন্তরঙ্গ দৃশ্যের অবতারণাটা স্বাভাবিক৷ নিজেদের সহমতের ভিত্তিতেই মিলনের, ভালোবাসার কখনো বা নিজেদের একান্ত খেলাধূলার ছবি ভিডিও করা হয়েছিল৷ এখন সেই ভিডিও, বাজারে যার নাম হোম মেড ভিডিও, সেটি এক কোম্পানির মাধ্যমে এই এত বছর পর বাজারজাত করছে জেনিফারের সাবেক স্বামী ওজানি নোয়া৷

কিন্তু একান্ত ব্যক্তিগত বলে উল্লেখ করে এ ভিডিও বাজারজাত করতে দিতে রাজি নন লোপেজ৷ তিনি আদালতে এ জন্য মামলা ঠুকে দিয়েছেন৷ আদালত ডেকেছে সাবেক স্বামী এবং তার এজেন্টকে৷ এই এজেন্টের নাম মায়ার৷ পেশায় সে একজন ফিল্ম মেকার৷ লোপেজের ঘরের একান্ত ছবি তিনিই সম্পাদনা করেছেন৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার
সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল- ফারূক

বিজ্ঞাপন