সতর্ক পশ্চিমবঙ্গ, শান্তিনিকেতনে বাতিল দোল উদযাপন | বিষয় | DW | 09.03.2020

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

করোনা

সতর্ক পশ্চিমবঙ্গ, শান্তিনিকেতনে বাতিল দোল উদযাপন

এক দিকে জীবাণুরোধকের কালোবাজারি, অন্যদিকে কর্তৃপক্ষের সাবধান বাণী৷ সব মিলিয়ে সতর্কতার আবহাওয়া পশ্চিমবঙ্গ৷

শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে তাঁর কার্যালয়ে কলকাতা পুরসভা নেতৃত্বের সাথে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত বৈঠক করেন৷ সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শীর্ষ পুলিশকর্তারাও৷

রাজ্য সরকার কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করছে তা নিয়ে নতুন করে আরোচনা করার পাশাপাশি রাজ্যের সবকটি মেডিক্যাল কলেজ ও সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালগুলিতে ‘আইসোলেশন বিভাগ' অবিলম্বে চালু করতে নির্দেশ দেম মুখ্যমন্ত্রী৷ করোনা রুখতে সাধারণ নাগরিকদের কী কী কর্তব্য, তাও মনে করিয়ে দেন তিনি৷

পশ্চিমবঙ্গ কীভাবে সামলাচ্ছে করোনা?

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে খবর, এখন পর্যন্ত ২৮৭ জনকে গৃহ-পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে৷ এরই মধ্যে বিদেশফেরতদের মধ্যে সুস্থপত্র পাওয়ার হিড়িক লেগেছে, যা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে বেশ কয়েকটি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ করোনা-প্রভাবিত দেশ থেকে ফেরায় তাঁদের কাছে ওই শংসাপত্র চাইছেন তাঁদের নিয়োগকর্তারা৷ বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের অধ্যক্ষা অণিমা হালদার আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘‘পরীক্ষা ছাড়া এই ধরনের শংসাপত্র দেওয়া যায় না৷ কিন্তু কাকে বোঝাব!''

করোনা ভাইরাস থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখা বিষয়ে কলকাতা বিমানবন্দরে একটি দু'দিনের কর্মশালার আয়োজন করেছে ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স (এনডিআরএফ)৷ সামান্যতম জ্বর ও অন্য উপসর্গ দেখা দিলেই সংশ্লিষ্ট যাত্রীকে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ আন্তর্জাতিক টার্মিনালে কর্মরতদের মধ্যে বাড়তি সতর্কতা দেখা যাচ্ছে৷

বাড়ছে সতর্কতা, উদযাপন বাতিল

কলকাতার বাইরে জেলাগুলিতেও সতর্কতার ছবি স্পষ্ট৷ বিএসএফ, অভিবাসন বিভাগ সূত্রের খবর, যেসব বাংলাদেশি নাগরিক সম্প্রতি চীন, হংকংয়ের মতো করোনা-প্রভাবিত দেশ থেকে ফিরেছেন, তাঁদের ভারতে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না৷ পেট্রাপোলের পাশাপাশি বসিরহাটের ঘোজাডাঙা সীমান্তেও বাংলাদেশ থেকে আগতদের জন্য স্বাস্থ্য শিবির শুরু হয়েছে৷ কারও জ্বর-সর্দিকাশির মতো উপসর্গ আছে কি না, তা জানতে অন্তত ১২ হাজার লোকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে, বলছে আনন্দবাজার৷

ইতিমধ্যে, মুর্শিদাবাদে সৌদি আরব থেকে আসা এক যুবকের মৃত্যুর পর নতুন করে সেখানে চাঞ্চল্য দেখা দিলেও পরে পরীক্ষা করে জানা যায় যে তার শরীরে ছিল না করোনা ভাইরাস৷

অন্যদিকে, ভারতে আজ দোল উৎসব পালিত হলেও কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে বলা হয়েছে বেশি জনসমাগমের স্থান এড়িয়ে চলতে৷ শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, বিশ্বভারতী বা অন্যান্য কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে বাতিল করা হয়েছে দোলের আয়োজন৷ কিন্তু প্রতি বছরের মতোই সাধারণ মানুষ নিজ নিজ পরিসরে ঠিকই দোল উদযাপন করছেন৷

এসএস/কেএম (সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা)

নির্বাচিত প্রতিবেদন