শ্রীলঙ্কার চায়ে রয়েছে ‘কামোদ্দীপক’ গুণ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 19.05.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

শ্রীলঙ্কার চায়ে রয়েছে ‘কামোদ্দীপক’ গুণ

চা ছাড়া বাঙালির আড্ডা যেন জমেই না৷ তাই তো কোথাও বেড়াতে গেলে চা চা-ই চাই৷ অনেকে আবার সকালে ঘুমে থেকে উঠে শোয়ার ঘরেই পান করেন চা৷ এবার, সেই বেডরুমেই চায়ের ‘বিশেষ’ উপকারের কথা জানা যাচ্ছে৷

খবরটি এসেছে শ্রীলঙ্কা থেকে, যারা চা উৎপাদন ও রপ্তানিতে বিশ্বের অন্যতম উল্লেখযোগ্য একটি দেশ৷ সেখানকার জিডিপি'র প্রায় ১২ শতাংশ আসে চা রপ্তানি থেকে৷ গত বছর এই খাত থেকে প্রায় দেড় বিলিয়ন ডলার আয় করেছিল শ্রীলঙ্কা৷

তবে দেশটির রপ্তানিকারকরা মনে করছেন চা রপ্তানি থেকে আয়ের পরিমাণ প্রায় চারগুণ বাড়ানো সম্ভব৷ এজন্য অনেক কোম্পানি নতুন নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করছে৷ যার একটি হচ্ছে, চায়ের অপ্রকাশিত একটি গুণ সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী প্রচারণা চালানো৷

শুধু মনকে সতেজ করাই নয়, শ্রীলঙ্কার চা কামনাশক্তিও বাড়ায় – এই তথ্যটি সারা বিশ্বে প্রচার করতে চাইছেন অনেক রপ্তানিকারক৷

Kaffeetasse

হোয়াইট টি যৌনশক্তি বাড়ায়!

বিশেষ করে ‘সিলভার টিপস' ও ‘গোল্ডেন টিপস' নামের ‘হোয়াইট টি', মানে সাদা রংয়ের চা পাতার মধ্যে বিশেষ এই গুণটি রয়েছে বলে জানান রোহান ফার্নান্ডো৷ তিনি শ্রীলঙ্কার অন্যতম শীর্ষস্থানীয় চা রপ্তানিকারক এইচভিএ ফুডস কোম্পানির মালিক৷

তিনি বলেন, হোয়াইট চা তৈরি করতে গাছের একেবারে কচি কুঁড়িগুলো সংগ্রহ করে সেগুলোর রং সাদা বা সোনালি না হওয়া পর্যন্ত রোদে শুকানো হয়৷

চীনা ব্যবসায়ী এবং সৌদি আরব ও জাপানের ধনকুবেরদের কাছে এই চা দিনদিন জনপ্রিয় হচ্ছে বলে জানান ফার্নান্ডো৷

অবশ্য হোয়াইট টি পান করলে যে শুধু যৌনশক্তি বাড়ে তা নয়, এর মধ্যে থাকা উপাদানগুলোর কারণে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ে৷ রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়ায়ও ঠিক থাকে৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন