শোকেসের মধ্যে অভিনব জগত গড়ে তোলেন যে শিল্পী | অন্বেষণ | DW | 08.04.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

শোকেসের মধ্যে অভিনব জগত গড়ে তোলেন যে শিল্পী

মিউজিয়ামের কাচের শোকেসের মধ্যে পুতুল ও মডেলভরা মিনিয়েচার জগত নিজস্ব কাহিনি তুলে ধরে৷ হামবুর্গের এক শিল্পী এমন ডায়োরামা তৈরির ক্ষেত্রে আরো সৃজনশীলতার পরিচয় দিচ্ছেন৷

হামবুর্গের শিল্পী সান্ড্রা হাফেমাইস্টারের তৈরি ডায়োরামা বা ত্রিমাত্রিক মিনিয়েচার মডেল একইসঙ্গে রূপকথাময়, পরাবাস্তব এবং কৌতূকে ভরা৷ ছোট শোকেসের মধ্যে তিনি অসাধারণ জগত সৃষ্টি করেন৷ এভাবে নিজের সৃজনশীলতা উজাড় করে দেন এই শিল্পী৷ নিজের সৃজনশীলতার প্রেক্ষাপট ব্যাখ্যা করে সান্ড্রা বলেন, ‘‘মনে আছে, শৈশবে আমি আসলে মহাকাশচারী, বানর গবেষক অথবা সমুদ্রের ডুবুরি হতে চেয়েছিলাম৷ সে সব আমার স্বপ্নের পেশা ছিল৷ সৌভাগ্যবশত এখন আমি ডায়োরামা তৈরি করছি৷ আমি তার মধ্যে খেয়াল খুশি মতো সৃষ্টির কাজে মেতে উঠতে পারি৷ ছোট বাক্সের মধ্যে কম জায়গা সত্ত্বেও তার মধ্যে সব কিছু ঢোকাতে পারি৷ যে কোনো জগত সৃষ্টি করতে পারি৷''

ডায়োরামা তৈরির আগে সান্ড্রা তার আইডিয়াগুলি মুডবোর্ড ও হাতে আঁকা স্কেচের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলেন৷ ক্ষুদ্র বইয়ের মতো অনেক ছোট বস্তু তিনি নিজেই গড়ে তোলেন৷

কিছু তৈরি বস্তু কিনে তিনি সেগুলি আরও সুন্দর করে তোলেন৷ যেমন উটের ক্ষুদ্র পুতুল৷ ইলেকট্রিক মিনি করাত দিয়ে তিনি অবশিষ্ট কাঠ কেটে নানা রং ও আয়তনের আসবাবপত্রও তৈরি করেন৷ সান্ড্রা বলেন, ‘‘আমি মূলত কোনো বস্তুর ৮৭ গুণ ছোট সংস্করণ তৈরি বা ব্যবহার করি৷ তবে এই মাপকাঠির বাইরের জিনিসও কাজে লাগাই৷ একটু ছোটবড় হলে ক্ষতি নেই, ঠিক খাপ খেয়ে যায়৷ তখন কিছুটা পাগলামি ও পরাবাস্তবে ভরা জগত সৃষ্টি হয়৷''

আপাতত তিনি দুবাইয়ের এক নতুন ডিজাইনার হোটেলের জন্য ছয়টি ভিন্ন ডায়োরামা গড়ে তুলছেন৷ সেই শোকেস-গুলি হোটেলের লিফটের মধ্যে বসানো হবে৷ তাই সেগুলি সাত সেন্টিমিটারের বেশি গভীর হলে চলবে না৷ এমন জায়গার জন্য অন্যভাবে ডিজাইন করার কথা ভাবতে হয়েছে৷ শিল্পী হিসেবে এমন চ্যালেঞ্জের মুখে সান্ড্রা হাফেমাইস্টার বলেন, ‘‘সবটা ছোট খুপরিওলা বাক্সের মতো করে ভাবতে হয়েছে৷ তার মধ্যে দুবাই শহরের কেন্দ্রস্থল বা পুরানো অংশের অনেক বিস্ময়জনক বস্তু ভরা রয়েছে৷ এক সপ্তাহ সেখানে ঘুরে অসংখ্য ছবি তুলেছি৷ অনেক আইডিয়া মাথায় এসেছে, অনেক জিনিস সংগ্রহ করেছি৷''

হামবুর্গ শহরের ‘পিরদ্রাই' হোটেল সান্ড্রা হাফেমাইস্টারকে দিয়ে ৭১টি ডায়োরামা তৈরি করিয়েছে৷ হোটেলের বিভিন্ন তলায় সেগুলি ছড়িয়ে রয়েছে৷ হোটেলের কর্ণধার স্টেফান পালাশ মনে করেন, ‘‘সান্ড্রা বিভিন্ন কাহিনির অনেক দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরতে সফল হয়েছেন৷ এই ডায়োরামাগুলি হোটেলের তলাগুলিকে প্রাণবন্ত করে তুলেছে৷ দেখলেই মুখে হাসি ফোটে৷ শিশুদের কাছে সেগুলি খেলার মতো, অতিথি হিসেবে প্রাপ্তবয়স্করা ডিজাইন দেখে মুগ্ধ হন৷ হোটেলে থাকার অভিজ্ঞতা আরও রঙিন ও ঘটনাবহুল করে তোলে৷''

হামবুর্গের ‘মিনিয়েচার ওয়ান্ডারল্যান্ড' মিউজিয়ামের জন্য সান্ড্রা হাফেমাইস্টার একটি বই জীবন্ত করে তুলেছেন৷ ভিন্ন স্বাদের সেই ভ্রমণের গাইড বন্দর ও ফিলহার্মোনিক অডিটোরিয়ামের মতো শহরের বিভিন্ন পরিচিত দ্রষ্টব্যগুলিকে ধরাছোঁয়ার মধ্যে নিয়ে আসে৷

ছবিতে তিনি ক্ষুদ্র মডেলগুলিকে শোকেসে বন্ধ না রেখে বিভিন্ন প্রেক্ষাপটে বসিয়েছেন৷ সান্ড্রা বলেন, ‘‘আমি নানা রকম গভীরতাসহ একটি ডায়োরামা তৈরি করতে চাই৷ আধ মিটার, এক মিটার, অনেক জায়গা ভরিয়ে তুলতে চাই৷ একটির মধ্যে অ্যাকোয়েরিয়ামের মতো পানি ভরা থাকবে৷''

তবে আসল পানি থাকলে চলবে না৷ সান্ড্রা হাফেমাইস্টারের তৈরি ডায়োরামা জাদু ও কাব্যময় জগতে ডুবে যেতে হাতছানি দেয়৷

ক্রিস্টিনে লেবার্ট/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়