শাহরুখকে কি জয় উপহার দিতে পারবে কেকেআর? | বিশ্ব | DW | 15.10.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

শাহরুখকে কি জয় উপহার দিতে পারবে কেকেআর?

শুক্রবার রাতে আইপিএল ফইনাল। চেন্নাই বনাম কলকাতা। সেখানে কি শাহরুখকে জয় উপহার দিতে পারবে কেকেআর?

আইপিএল ফাইনালে কি জিততে পারবে শাহরুখ খানের দল?

আইপিএল ফাইনালে কি জিততে পারবে শাহরুখ খানের দল?

কেকেআরের গুরুত্বপূর্ণ খেলা থাকলেই দর্শকাসনে দেখা যেত শাহরুখকে। কখনো দাঁড়িয়ে, কখনো বসে খেলা দেখছেন। কেকেআর উইকেট নিলে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ছেন। দলের ব্যাটসম্যানরা ছয় বা চার মারলে মুখের হাসি চওড়া হচ্ছে। কখনো ছুঁড়ে দিচ্ছেন ফ্লাইং কিস। উত্তেজনার সময় টেনশনে ভুগছেন। মাঠে থেকে নিশ্চিতভাবেই দলকে উজ্জীবীত করতেন বলিউড তারকা।

কিন্তু দুবাই, আবু ধাবিতে আইপিএলের দ্বিতীয় ও শেষ পর্বের ম্যাচগুলিতে শাহরুখকে গ্যালারিতে দেখা যায়নি। বস্তুত ছেলে আরিয়ান মাদক মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর শাহরুখকে আর প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। বিদেশে সিনেমার শুটিং বাতিল করেছেন। দেশে বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে যাননি। একটা কথাও বলেননি। তার দল কেকেআর যে দ্বিতীয় পর্বে একের পর এক ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে দিল্লির সঙ্গে সহজ খেলাকে কঠিন করে কোনোমতে জিতল, তারপরেও প্রকাশ্যে কোনো কথা বলেননি তিনি। সবসময় হাসি-মজা করতে থাকা, নিজের দলকে সবসময় উজ্জীবীত করতে থাকা শাহরুখের যে মন ভালো নেই, এটা বলার জন্য জ্যোতিষী হওয়ার দরকার পড়ে না।

এই সময়ে শাহরুখকে কি জয় উপহার দিতে পারবেন কেকেআরের যোদ্ধারা?

কঠিন লড়াই

কোনো সন্দেহ নেই, কেকেআরের লড়াই খুবই কঠিন। কারণ, ফাইনালে প্রতিপক্ষ চেন্নাই সুপার কিংস, যার অধিনায়কের নাম মহেন্দ্র সিং ধোনি। এবার আইপিএলে ধোনি ব্যাটে খুব বেশি রান পাননি। কিন্তু সেমিফাইনালে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সংকটের সময়ে মাথা ঠান্ডা রেখে দলের জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান সংগ্রহ করেছেন। ধোনি শুধু নয়, চেন্নাই টিমের ব্যাটিং গভীরতা যেমন আছে, তেমনই তাদের বোলিংও ভালো।

দুই ওপেনার ঋতুরাজ গাইকোয়াড় ও ফ্যাফ দুপ্লেসি ভালো ফর্মে আছেন। আম্বাতি রায়ডু, রবিন উত্থাপ্পা, মইন আলি, ধোনি, রবীন্দ্র জাদেজা, ব্রাভোরাও আছেন। বোলিংয়ে হ্যাজেলউড, শার্দুল ঠাকুর, দীপক চাহার চেন্নাইকে নির্ভরতা দেন। তছাড়া আছেন দুই স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজা ও মইন আলি। সব মিলিয়ে চেন্নাই কঠিন প্রতিপক্ষ।

কেকেআরের শক্তি

কলকাতা নাইট রাইডার্সের শক্তি হলো তার স্পিনাররা। নারাইন, বরুণ চক্রবর্তী এবং সাকিব আল হাসান খুবই ভালো খেলছেন। ঠিক জায়গায় বল রাখছেন। খুব বেশি রান দিচ্ছেন না। মন্থর উইকেটে তাদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন বিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা। সঙ্গে আছেন রাসেল, মাভি, ফার্গুসন। আর কেকেআরের ব্যাটিংকে নির্ভরতা যোগাচ্ছেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার, শুভমন গিল, রাহুল ত্রিপাঠী, দীনেশ কার্তিক, রাসেলরা। অধিনায়ক মর্গান অবশ্য একেবারেই ফর্মে নেই।

সাকিব কি টিমে থাকবেন?

বেশ কয়েকটি ম্যাচ মাঠের বাইরে থাকা পর সুযোগ পেয়েছিলেন সাকিব। তিনি সুযোগ কাজে লাগিয়ে ভালো খেলেছেন। মর্গান তাকে দিয়ে বোলিং শুরু করিয়েছেন। সাকিব উইকেট পেয়েছেন। রানও বেশি দেননি। রাসেল ফিট হয়ে টিমে ঢুকলে কি সাকিব বাদ যাবেন? সেই সম্ভাবনা রয়েছে। যদি না চূড়ান্ত অফ ফর্মে থাকা মর্গান না খেলেন।

কেকেআরের কোচ ম্যাকালাম এবার দুরন্ত কোচিং করাচ্ছেন। ডাগ আউট থেকে তিনি একের পর এক নির্দেশ পাঠাচ্ছেন। কৌশল বলে দিচ্ছেন। সেগুলি কাজেও লাগছে। ভেঙ্কটেশ আইয়ারকে টিমে রেখে ওপেন করানোর সিদ্ধান্তও তার। তিনি কি দলের অধিনায়ককে বাদ দিতে পারবেন? রাসেল ফিট হলে এবং মর্গান টিমে থাকলে সাকিব বাদ পড়তে পারেন।

দারুণ পারফরম্যান্স

করোনার কারণে ভারতে আইপিএল বন্ধ হয়ে যায়। সেসময় কেকেআর ছিল সাত নম্বর স্থানে। আমিরাতে নয় ম্যাচে কেকেআর সাতটিতে জিতেছে। যে কোনো টিমের কাছে স্বপ্নের পারফরম্যান্স। ভেঙ্কটেশ আইয়ার, রাসেল, নারাইন, শুভমন গিল, বরুণ চক্রবর্তীরা অসাধারণ খেলেছেন। পরে সুযোগ পেয়ে সাকিবও খুব ভালো খেলেছেন। অন্যরাও চেষ্টা করেছেন। তাই রাসেল চোট পেয়ে বসে যাওয়ার পরেও কেকেআর জয়ে থেকেছে। তাই এই টিমকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেই পারেন সমর্থকরা। তারা ভাবতেই পারেন, এই সময়ে শাহরুখকে জয় উপহার দিয়ে তাকে কিছুটা ভালোলাগা দেবেন কেকেআরের ১১ জন নাইট।

জিএইচ/এসজি(পিটিআই)