শান্ত হচ্ছে না কেমনিৎস, শহরে মুখ্যমন্ত্রী | বিশ্ব | DW | 31.08.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

শান্ত হচ্ছে না কেমনিৎস, শহরে মুখ্যমন্ত্রী

জার্মানির পূর্বাঞ্চলের কেমনিৎস শহর এখনো শান্ত হচ্ছে না৷ সপ্তাহান্তের অপ্রিয় ঘটনার পর লাগাতার বিক্ষোভের মাঝে মুখ্যমন্ত্রী নাগরিকদের সঙ্গে সংলাপের মাধ্যমে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা চালিয়েছেন৷

কেমনিৎস শহরের জন্য বৃহস্পতিবারের দিনটিও ছিল উত্তেজনায় ভরা৷ গত সপ্তাহান্তে একটি হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্র করে চরম দক্ষিণপন্থিদের তাণ্ডব ও বিদেশি বিদ্বেষের একাধিক ঘটনার পর বৃহস্পতিবার আবার প্রায় ৯০০ চরম দক্ষিণপন্থি বিক্ষোভকারী শহরে মিছিল করে৷ চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের ‘উদার' শরণার্থী নীতির বিরুদ্ধে তারা সোচ্চার ছিল৷ শরণার্থীদের অপরাধের ঘটনার ক্ষেত্রে সংবাদ মাধ্যমের ভূমিকারও সমালোচনা করে তারা৷ তবে এবার পুলিশ আগের তুলনায় অনেক বেশি তৎপর ছিল৷ আশেপাশের রাজ্য থেকেও বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল৷ উত্তেজনা সত্ত্বেও কোনো অপ্রিয় ঘটনা ঘটেনি বলে পুলিশ জানিয়েছে৷ আগামী কয়েক দিনেও চরম দক্ষিণপন্থি ও বামপন্থিরা বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে৷

একই দিনে শহরে অনেকটা সময় কাটালেন স্যাক্সনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মিশায়েল ক্রেচমার৷ মন্ত্রিসভার বেশ কয়েকজন সদস্যকে নিয়ে তিনি শহরের মানুষের সঙ্গে দীর্ঘ সংলাপ চালান৷ স্থানীয় ফুটবল স্টেডিয়ামে অনেক মানুষ মুখ্যমন্ত্রীর সামনে তাঁদের ক্ষোভ উগরে দেন৷ অনেকের মতে, গত সপ্তাহান্তের ঘটনার জের ধরে শহরের বদনাম হচ্ছে ও সার্বিকভাবে শহরের মানুষদের ঢালাওভাবে চরম দক্ষিণপন্থির তকমা দিয়ে বিকৃত চিত্র তুলে ধরা হচ্ছে৷

উত্তপ্ত বিতর্ক সত্ত্বেও সেখানে কোনো অপ্রিয় ঘটনা ঘটেনি৷ পুলিশ অবশ্য স্টেডিয়ামে প্রবেশের ক্ষেত্রে কড়া নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা রেখেছিল৷ বিক্ষোভকারীরা সেখানে প্রবেশের সুযোগ পায়নি৷ মুখ্যমন্ত্রী শহরে অপরাধের ঘটনা মোকাবিলার আশ্বাস দেন৷ যারা বিক্ষোভের সময়ে নাৎসি অভিবাদন করেছে, তাদের বিরুদ্ধেও পদক্ষেপের ঘোষণা করেন তিনি৷ কেমনিৎস শহরের মেয়র বারবারা লুডভিশ শহরের ভাবমূর্তির উন্নতির অঙ্গীকার করেন

পুলিশ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষের মধ্যে চরম দক্ষিণপন্থি মনোভাব নিয়েও বিতর্ক চলছে৷ সপ্তাহান্তে হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত এক ব্যক্তির নামে শমন ফাঁস করে দেওয়ায় এক পুলিশ কর্মীকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে৷ শহরের চরম দক্ষিণপন্থি ‘প্রো কেমনিৎস' গোষ্ঠী ও এএফডি দলের ওয়েবসাইটে সেই শমন প্রকাশ করা হয়৷ ইব্রাহিম নামের ২২ বছর বয়স্ক অভিযুক্ত ব্যক্তি ইরাক থেকে শরণার্থী হিসেবে জার্মানিতে আসে এবং তার বিরুদ্ধে একাধিক অপরাধের অভিযোগ আনা হয়৷ তবে তাকে প্রত্যর্পণের চেষ্টা এখনো পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের একাংশে দাবি করা হচ্ছে৷

এসবি/এসিবি (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন