শরণার্থীদের সিরিয়ায় ফিরে যাওয়া উচিত : এএফডি | বিশ্ব | DW | 20.03.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সিরিয়া

শরণার্থীদের সিরিয়ায় ফিরে যাওয়া উচিত : এএফডি

কয়েকদিন আগে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ ৮ বছরে পা দিল৷ প্রতিদিন সেখানে বোমাবর্ষণ চলছে৷ প্রাণ হাতে নিয়ে পালাচ্ছেন সাধারণ মানুষ৷তারই মধ্যে এএফডি বলছে– দেশে ফিরে যাক শরণার্থীরা৷

সিরিয়ায় তেমন কোনো সমস্যাই নেই৷ জার্মানিতে আসা সিরিয়ার শরণার্থীরা ফিরে যেতে পারেন দেশে৷ রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক করে এ কথা জানালেন জার্মানির দক্ষিণপন্থি দল এএফডি'র সদস্যরা৷ সম্প্রতি নিজেদের উদ্যোগে সিরিয়ায় একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছিল এএফডি৷ সে দেশ থেকে ঘুরে এসে নিজেদের মন্তব্য জানালেন প্রতিনিধিরা৷ তাঁরা জানিয়েছেন, এ কথা ঠিক যে, সিরিয়ার বহু অঞ্চল যুদ্ধ বিদ্ধস্ত৷ কিন্তু সে দেশের বহু এলাকাই যুদ্ধের কবলের বাইরে৷ সিরিয়ার শরণার্থীরা নিজেদের দেশে ফিরে গিয়ে সে সমস্ত অঞ্চলে বসবাস করতেই পারেন৷

গত নির্বাচনে চোখে পড়ার মতো ভোট পেয়েছে এএফডি৷ সদ্য গঠিত সংসদে তারাই বিরোধী দল৷ নির্বাচনের সময় থেকেই তাদের বক্তব্য ছিল, শরণার্থীদের দেশে ফিরিয়ে দেওয়া উচিত৷ শরণার্থীদের প্রতি জার্মানির দৃষ্টিভঙ্গি নিয়েও তারা বারংবার প্রশ্ন তুলেছে৷

কয়েক সপ্তাহ আগে এএফডি সদস্য ক্রিস্টিয়ান ব্লেক্সের নেতৃত্বে ৭ সদস্যের একটি দল গিয়েছিল সিরিয়ায়৷ সেখানে সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ আল মুয়াল্লিম এবং মন্ত্রী আলি হায়দারের সঙ্গে বৈঠক করেন তাঁরা৷ এএফডি'র সদস্য এবং সাংসদ আরমিন পাউলুস হাম্পেল বলেন, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদের সঙ্গে আলোচনা করতে পারে জার্মান সরকার৷ আসাদকে অর্থ সাহায্য করতে পারে এবং শরণার্থীদের ফিরিয়ে নেওয়ার আবেদন করতে পারে৷ তাঁর আরো বক্তব্য, জার্মান সরকার আসাদ সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে পারে, যাতে সরকারবিরোধী শরণার্থীদেরও সিরিয়া নিরাপদে থাকতে দেয়৷

গত ৮ বছরে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন৷ লক্ষ লক্ষ মানুষ বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়েছেন৷ বহু মানুষ ইউরোপে এসে আশ্রয় নিয়েছেন৷ এমন পরিস্থিতিতে এএফডি'র সিরিয়া যাওয়া এবং শরণার্থীদের ফিরিয়ে দেওয়ার দাবির সমালোচনা করছে বাকি সব দল৷ বাম এবং সদ্য গঠিত জার্মান সরকার এর কড়া সমালোচনা করেছে৷

এসজি/এসিবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়