লিবিয়ায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায় | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 16.08.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

লিবিয়া

লিবিয়ায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায়

ফায়ারিং স্কোয়াডে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছে লিবিয়ার এক আদালত৷ দেশটির বিচার মন্ত্রণালয় বলছে, তাঁদের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের গণঅভ্যুত্থানের সময় হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ আছে৷

বিচার মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে মামলার বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়নি৷ তবে মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সাবেক লিবীয় নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যূত হওয়ার কিছু আগে তাঁর অনুগত বাহিনী এসব হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল৷

অন্তত ২০ জনকে হত্যার দায়ে আরো ৫৪ জনকে পাঁচ বছর করে জেল দেয়া হয়েছে৷ খালাস দেয়া হয়েছে ২২ অভিযুক্তকে৷

আসামিপক্ষের আইনজীবী এবং অভিযুক্তদের স্বজনরা রায় দেয়ার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন৷ তবে আসামিদের কেউ আদালতে ছিলেন না৷ বিচার মন্ত্রণালয়ের সরবরাহ করা একটি ছবিতে দেখা যায়, কোর্টরুমের ভেতর কালো পোশাক পরিহিত বিচারকদের পাশে বন্দুক নিয়ে দুজন রক্ষী দাঁড়িয়ে আছেন৷

২০১১ সালের পর একাধিক শিবিরে বিভক্ত হয়ে সশস্ত্র লড়াইয়ে লিপ্ত লিবিয়া৷ এর পর থেকে বিভিন্ন সময়ে বিরোধী পক্ষের ব্যক্তিদের মৃত্যুদণ্ড দেয়া হলেও কোনো রায় কার্যকরের কথা এখনও শোনা যায়নি৷

সবশেষ বার্ষিক প্রতিবেদনে লিবিয়ার বিচারব্যবস্থাকে ‘অকার্যকর' বলে উল্লেখ করেছে মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল৷ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১১ সালের পর থেকে অনেককেই বেআইনিভাবে আটকে রাখা হয়েছে এবং তাঁদেরকে এই আটকাদেশ চ্যালেঞ্জের কোনো সুযোগও দেয়া হচ্ছে না৷

এডিকে/এসিবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন