র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে′ রোহিঙ্গা নিহত | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 05.08.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গা নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন৷ নিহত রোহিঙ্গার  বিরুদ্ধে ডাকাতির মামলা রয়েছে বলে র‌্যাব জানায়৷

বৃহস্পতিবার ভোরে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের শরণার্থী শিবির সংলগ্ন দমদমিয়া পাহাড়ি এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনার কথা ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন র‌্যাব ১৫-এ কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ৷  র‌্যাবের ভাষ্য অনুযায়ী নিহত ৪০ বছর বয়সি নূরুল আলম নুরু ওই এলাকার একটি ডাকাত বাহিনীর প্রধান৷

উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ বলেন, "অস্ত্রধারীরা ডাকাতি ও অপহরণের উদ্দ্যেশে জড়ো হওয়ার খবর পেয়ে র‌্যাব অভিযান চালায়৷ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তারা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ করে গুলি ছুড়তে থাকে৷ র‌্যাব সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে৷ একপর্যায়ে তারা পিছু হটলে ঘটনাস্থলে নূরুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পায় র‌্যাব৷ তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন৷ অভিযানে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন৷”

তিনি আরো বলেন, ”নূরু একজন চিহ্নিত ডাকাত৷ নূরু নিজের নামে ডাকাত বাহিনী গড়ে তুলে বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি, অপহরণ, চাঁদাবাজি, খুন ও মাদক কারবারসহ নানা অপরাধ করত৷ এসব অভিযোগে টেকনাফ থানায় তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে৷”

ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, তিনটি লম্বা বন্দুক ও চারটি গুলি বের করা হয়েছে৷ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ৷ 

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়