রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলিতে সাতজন নিহত | বিশ্ব | DW | 22.10.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলিতে সাতজন নিহত

উখিয়ায় শরণার্থী শিবিরে রোহিঙ্গাদের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে অন্তত সাতজন নিহত হয়েছে৷ অস্ত্রসহ একজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের (এপিবিএন) অধিনায়ক পুলিশ সুপার মো. শিহাব কায়সার খান জানান, শুক্রবার ভোর রাত সোয়া ৪টার দিকে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের ১৮ নম্বর ময়নারঘোনা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলি হয়৷ক্যাম্পে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি৷ তবে এই সংঘর্ষ কারণ নিয়ে তারা এখনো নিশ্চিত নন৷

কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরগুলোতেবিভিন্ন সময়ে গোলাগুলি ও সংঘর্ষ হয়েছে৷ পুলিশের পক্ষ থেকে বেশিরভাগই সেগুলোকে ‘রোহিঙ্গা ডাকাত' বা ‘চোরাকারবারিদের' কাজ বলা হয়ে থাকে৷ তবে রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ খুন হওয়ার পর বিষয়গুলো এখন আন্তর্জাতিক পর্যায়েও আলোচনায় আসছে৷  

গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে কুতুপালং-১ (ইস্ট) লম্বাশিয়া ক্যাম্পের ডি-৮ ব্লকে গুলি করে মুহিবুল্লাহকে হত্যা করা হয়৷ তিনি আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস সংগঠনের চেয়ারম্যান ছিলেন৷ তবে পরিবারের অভিযোগ, মুহিবুল্লাহকে হত্যা করেছে রোহিঙ্গাদেরই অন্য একটি সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)৷

এই সংঘর্ষে আহত কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷ নিহতদের লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে৷

এনএস/জেডএইচ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়