রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম মৃত্যু | বিশ্ব | DW | 02.06.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম মৃত্যু

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় এক রোহিঙ্গাসহ ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু ৭০৯ জন৷

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সচেতনতামূলক কর্মসূচি চালাচ্ছে নৌবাহিনী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সচেতনতামূলক কর্মসূচি চালাচ্ছে নৌবাহিনী

বাংলাদেশের কক্সবাজারে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির হয়ে ওঠা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সোমবার ৭১ বছরের এক বৃদ্ধা কোভিড-১৯ উপসর্গ নিয়ে মারা যান৷ পরে পরীক্ষায় জানা যায় তিনি করোনা পজেটিভ ছিলেন৷

কক্সবাজারের শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন বিষয়ক কমিশনার মোহাম্মদ সামছু-দ্দৌজার বরাত দিয়ে বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মঙ্গলবার এ খবর নিশ্চিত করে৷

সরকারি হিসাব অনুযায়ী রোহিঙ্গা শিবিরে এ পর্যন্ত অন্তত ২৯ জনের করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে৷ মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়ায় ৩৪টি শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়ে আছে৷

ভিডিও দেখুন 03:47

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বাস্থ্যবিধি মানার সুযোগ কতটা?

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্তের পর ১১ মার্চ থেকে রোহিঙ্গা ক্যাম্প অবরুদ্ধ করে দেওয়া হয়৷ তারপরও শিবিরে  সংক্রমণ আটকানো যায়নি৷

সারা দেশেও করোনা ভাইরাস সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাচ্ছে৷ মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৭০৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ২ হাজার ৯১১ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়৷ এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ হাজার ৪৪৫ জন৷ তাদের মধ্যে মোট ১১ হাজার ১২০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷ এদিন সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছাড়েন ৫২৩ জন৷

দেশে এখন সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে মোট ৫২টি পরীক্ষাগারে করোনা টেস্ট করা হয়৷ গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৯৫০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়৷ মোট নমুনা সংগ্রহ ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৭৩টি৷

এদিন মারা যাওয়াদের মধ্যে ৩৩ জন পুরুষ এবং চার জন নারী৷

এসএনএল (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন