রোমা পেরেছে, পারবে কি জুভেন্টাস? | বিশ্ব | DW | 11.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

রোমা পেরেছে, পারবে কি জুভেন্টাস?

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে পড়ে কোনোভাবেই সমালোচনা এড়াতে পারছে না স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা৷ মঙ্গলবার রাতে নিজেদের মাটিতে ইটালিয়ান পরাশক্তি রোমা তাদের হারিয়েছে ৩-০ গোলে৷

বুধবার সকালের স্প্যানিশ পত্রিকাগুলো জুড়ে শুধু বার্সার সমালোচনা৷ স্পোর্টস ডেইলি ডিয়ারিও এএস বলছে, ‘‘একদল মোষের পায়ের তলায় শূন্য থেকে ৯৪ মিনিট পর্যন্ত তারা (বার্সা) পিষ্ট হয়েছে৷ কোনো অজুহাত চলবে না৷''

এক সপ্তাহ আগে নিজেদের মাঠ বার্নাব্যুতে ৪-১ গোলে রোমাকে হারিয়েছিল বার্সা৷ হোম-অ্যাওয়ে মিলে ৪-৪ গোলে সমতা এলেও অ্যাওয়ে গোল পাওয়ার সুবাদে ইউরোপ সেরার লড়াইয়ের সেমিফাইনালে পৌঁছে গেছে রোমা৷ আরেক স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা'র হেডলাইন ছিল, ‘‘ইউরোপে পুরোপুরি ব্যর্থ৷'' এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার শেষ চারে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে কাটালানরা৷ এক সম্পাদকীয়কে এল মুন্ডো ডিপোর্টিভো লিখেছে, ‘‘এটা শুধু একটি পরাজয় নয়৷ তার চেয়েও বেশি কিছু৷''

খেলোয়াড়দের পাশাপাশি হারের দায় চাপানো হয়েছে বার্সা কোচ এর্নেস্তো ভালভের্দি‘র ওপর৷  লিওনেল মেসির ওপর অতি-নির্ভরতা, অনেক দাম দিয়ে কেনা ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড আউসমানে ডেম্বেলের ওপর আস্থা রাখতে না পারা এবং বার্সার কৌশলে পরিবর্তন আনা–সব কিছু নিয়েই কোচের দিকে গেছে সমালোচনার তির৷ 

মেসি পারফর্ম করতে ব্যর্থ হওয়ায় পুরো দলই ডুবেছে বলে মনে করছে পত্রিকাগুলো৷

প্রথম লেগে ৪-১ গোলে পিছিয়ে থেকে অলিম্পিকো স্টেডিয়ামে অতিথিদের বিরুদ্ধে খেলতে নামে রোমা৷ ছয় মিনিটেই ডি রসির লম্বা পাস থেকে বার্সার জালে বল জড়ান রোমার বসনিয়ান স্ট্রাইকার জেকো৷ ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ইটালিয়ান জায়ান্টরা৷

দ্বিতীয়ার্ধে সেই জেকো'র সুবাদেই পাওয়া পেনাল্টি থেকে গোল ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ডি রসি৷ খেলা শেষ হবার কয়েক মিনিট আগে বার্সার কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন মানোলাস৷ কর্নার থেকে পাওয়া একটি বল সাইড হেড করে চমৎকারভাবে লা লিগার অন্যতম সেরা দলটির জালে পাঠান তিনি৷ বার্সাও সুযোগ তৈরি করেছিল ম্যাচে৷ কিন্তু খেলোয়াড়রা সেগুলো কাজে লাগাতে পারেননি৷ রাতের অন্য ম্যাচে ইংলিশ প্রতিপক্ষ ম্যানচেস্টার সিটিকে ২-১ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে৷ প্রথম লেগে নিজেদের মাটিতে সিটিকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল তারা৷

এদিকে, গতকাল পর্যন্ত বার্সেলোনার সামনে রোমা যেভাবে দাঁড়িয়ে ছিল, ঠিক একইভাবে স্প্যানিশ লা লিগার আরেক পরাশক্তি রেয়াল মাদ্রিদের সামনে দাঁড়িয়ে আছে সিরি আ'র আরেক জায়ান্ট জুভেন্টাস৷ জুভদের বিপক্ষে প্রথম লেগে ৩-০ গোলে জেতায় অনেকটাই এগিয়ে আছে রেয়াল৷ সে ম্যাচটি হয়েছিল জুভেন্টাসের মাটিতে৷ তাই দ্বিতীয় লেগ নিজেদের মাটিতেই খেলবে মাদ্রিদের দলটি৷ বার্সার হার থেকেও হয়তো শিক্ষা নিয়ে স্বাভাবিক খেলাই উপহার দেবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোরা৷ অন্যদিকে, জুভেন্টাসও স্বদেশী রোমার পারফরম্যান্স থেকে উজ্জ্বীবিত হতে পারে৷ এছাড়া নিজের মাটিতে রেয়ালের সুবিধা যেমন আছে, তেমনি চাপও থাকবে৷

তাছাড়া লিগের সর্বশেষ ম্যাচে জুভদের ৪-২-এর একটি জয়ও আছে৷ তবে দুঃসংবাদ হলো, সে ম্যাচে হ্যাট্রিক পাওয়া স্ট্রাইকার ডিবালা খেলবেন না রেয়ালের বিপক্ষে৷ কারণ, প্রথম লেগে দু'বার কার্ড দেখে ৬৬ মিনিটেই মাঠ ছেড়েছিলেন তিনি৷ অন্যদিকে, রেয়াল ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসও খেলবেন না এ ম্যাচে৷ এছাড়া দু'দলেই রয়েছে ইনজুরি সমস্যা৷

রাতের শেষ আটের অন্য ম্যাচে জার্মান বুন্ডেস লিগার সেরা দল  বায়ার্ন মিউনিখ ঘরের মাঠে খেলবেস্প্যানিশ দল সেভিয়ার বিপক্ষে৷ প্রথম লেগে ২-১ গোলে এগিয়ে আছে জার্মান জায়ান্টরা৷

সব মিলিয়ে একটি উত্তেজনাপূর্ণ রাতের অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব৷

জেডএ/এসিবি (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন