রোবোটিক মিউজিকের পথপ্রদর্শক জার্মানির মোরিৎস | অন্বেষণ | DW | 27.09.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

রোবোটিক মিউজিকের পথপ্রদর্শক জার্মানির মোরিৎস

রোবোটিক মিউজিক! নাম শুনেছেন আগে? জার্মানির ড্রেসডেন শহরের মোরিৎস সিমন গাইস্ট আর সবার মতো কম্পিউটার দিয়ে মিউজিক তৈরি করতে পছন্দ করেন না৷ তাই তিনি ছোট ছোট রোবট তৈরি করেছেন যেগুলো দিয়ে সুর সৃষ্টি করেন মোরিৎস৷


মোরিৎসের প্রিয় ইনস্ট্রুমেন্ট হচ্ছে এই রোবট গিটার৷ ‘‘এটি আসলে একটি মোটর, যেটা এখানে বসানো হয়েছে৷ এটি তারকে নিয়মিত নাড়াতে থাকে যেন নিয়মিত শব্দ তৈরি হয়,'' জানান তিনি৷

কম্পিউটার দিয়ে রোবটকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়৷ আর মাইক্রোফোন শব্দ গ্রহণ করে অ্যামপ্লিফায়ারে পাঠিয়ে দেয়৷

মোরিৎস বলেন, ‘‘আমি কম্পিউটার দিয়ে মিউজিক তৈরি করতে চাইনা৷ তবে কিছু জিনিস আমাকে কম্পিউটার দিয়ে করতে হয়, কিন্তু আমি চাই বিভিন্ন বস্তু দিয়ে শব্দ তৈরি করতে৷ সেজন্য আমি রোবট তৈরি করছি যেটা আসলে শব্দ বাজায়৷''
 
মোরিৎস সিমন গাইস্ট ২০১৩ সালে তার প্রথম ইনস্ট্রুমেন্ট তৈরি করেন৷ চার বাই দুই মিটারের এই ড্রাম মেশিনের নাম ‘এমআর-৮০৮'৷ বানাতে সময় লেগেছে তিন বছর৷

মোরিৎসের লক্ষ্য ইলেক্ট্রনিক মিউজিককে দেখার বস্তু করা৷ বর্তমানে বেশিরভাগ সুর আর ড্রামের সাউন্ড ডিজিটাল উপায়ে তৈরি করা হয়৷ কিন্তু মোরিৎস রোবট দিয়ে সেই কাজগুলো করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘যখন আমি এমআর-৮০৮ নিয়ে প্রথম পারফর্ম করি, তখন দেখতে পাই যে, অনেক মানুষ কাছে চলে আসছে৷ তারা দেখছে যে, যন্ত্রের বিভিন্ন অংশ নড়াচড়া করছে৷ রোবট কীভাবে কাজ করছে তা জানতে তারা আগ্রহী হয়ে উঠেছিল৷ এটাই আসলে আমার কাজের একটা অন্যতম লক্ষ্য- মানুষ যেন বুঝতে পারে, শব্দ কোথা থেকে আসছে৷ এরপর হঠাৎ আমার মনে হলো, ‘ওকে', দর্শকদের শুধু দেখতে না দিয়ে তাদেরকে ইন্সট্রুমেন্ট বাজাতে দিলে কেমন হয়! তখন আমি এটাকে ইন্টাব়়্যাক্টিভভাবে তৈরি করি৷''
 
সাউন্ড আর মিউজিকের মধ্যে সম্পর্ক এবং মিউজিক ও প্রযুক্তির মধ্যে সম্পর্কের বিষয়ে কৌতূহলী মোরিৎস৷ সে কারণে তিনি সবসময় নতুন কিছু করতে আগ্রহী৷ ৪০ বছর বয়সি ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার মোরিৎস বেশ কয়েকটি ইনস্ট্রুমেন্ট বাজাতে পারেন৷ তাকে রোবোটিক মিউজিকের পথপ্রদর্শক মনে করা হয়৷
 
মোরিৎস বলেন, ‘‘রোবট হচ্ছে একটা শরীর৷ এরপর আসে মস্তিষ্ক, যেটা আসলে আমি, কারণ আমি বেশিরভাগ রোবট নিয়ন্ত্রণ করছি৷ পরবর্তীতে আমি আর্টিফিশিয়াল ব্রেন তৈরি করতে চাই, যেটা নিজে মিউজিক তৈরি করে রোবট দিয়ে বাজাতে পারবে৷''

এমনকি পপকর্ন দিয়েও মিউজিক তৈরি করতে পারে মোরিৎসের রোবট৷

ডোরোটে প্রেচ/জেডএইচ

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়