রোগ প্রতিরোধ করতে পশ্চিমবঙ্গে ‘ইমিউনিটি সন্দেশ’ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 29.06.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

রোগ প্রতিরোধ করতে পশ্চিমবঙ্গে ‘ইমিউনিটি সন্দেশ’

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন বিভাগের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রোগ প্রতিরোধকারী একটি বিশেষ সন্দেশ তৈরি করছেন তারা৷ আগামী দুই মাসের মধ্যে সন্দেশটি পাওয়া যাবে৷

ভারতীয় সংবাদসংস্থা পিটিআইকে সেই কর্মকর্তা জানান, ইমিউনিটি বাড়াতে সক্ষম এই ‘আরোগ্য সন্দেশ' তৈরি করা হবে তুলসি ও মধু দিয়ে৷ সন্দেশের জন্য মধু সরবরাহ করা হবে সুন্দরবন থেকে৷

প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন বিভাগের পক্ষে জানানো হয়েছে যে, এই সন্দেশে কোনো কৃত্রিম স্বাদ থাকবে না৷ এই বিশেষ সন্দেশটি কলকাতা ও তার আশেপাশের জেলাগুলির বিভাগীয় আউটলেটগুলিতে পাওয়া যাবে বলেও জানান সেই কর্মকর্তা৷

এর আগেও, ইমিউনিটি বাড়াতে পারে এমন আরেকটি সন্দেশের কথা ছড়িয়ে পড়েছিল পশ্চিমবঙ্গে৷ কোভিড-১৯ ভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে থাকার মাঝেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠা এই সন্দেশে ছিল কাঁচা হলুদ, জাফরান, এলাচ ও হিমালয়ের বিশেষ মধু৷ ১৫ রকমের বিশেষ জড়িবুটিসম্পন্ন এই সন্দেশ বাজারে এনেছিলেন কলকাতার অন্যতম প্রাচীন মিষ্টিপ্রস্তুতকারক বলরাম মল্লিক ও রাধারমণ মল্লিক৷

সুন্দরবন বিষয়ক মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা জানান, আরোগ্য সন্দেশের জন্য মধু সুন্দরবনের পিরখালি, ঝাড়খালি অঞ্চল থেকে আনা হবে৷ আগামী দুই মাসের মধ্যে বাজারে চলে আসবে এই সন্দেশ৷ দামও থাকবে নাগালের মধ্যেই, জানান পাখিরা৷

কিন্তু এই সন্দেশ কোনোমতেই করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক নয়, তা স্পষ্ট করে দেন মন্ত্রী৷ এই সন্দেশ কেবলই শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে বলে জানান তিনি৷

এসএস/জেডএইচ (হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি, বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন