রোগের নাম ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 01.06.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

রোগের নাম ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস

যে কারো শরীরেই যে কোন কারণে রক্ত জমাট বাধতে পারে৷ সাধারণত, আমারা খুব বেশি গুরুত্ব দেই না এই জমাট বাধা রক্তকে৷ অথচ তা কিন্তু মৃত্যুর কারণ পর্যন্ত হতে পারে৷ এই রোগের নাম ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস৷

default

নিয়মিত রক্ত পরীক্ষা করা সবার জন্যই আবশ্যক

ইংল্যান্ডের পোর্ট্সমাউথের মেয়ে ১৯ বছর বয়স্ক বিলি জো টুইগ৷ প্রথমে বিলি জো পায়ে হালকা ব্যাথা অনুভব করছিল কিন্তু তেমন পাত্তা দেয়নি৷ ধরে নিয়েছিল মাংসপেশিতে হয়তো কোথাও টান পড়েছে৷ কিন্তু জামাট বাধা রক্ত স্পষ্টতই চোখে পড়ছিল যে কারো৷

পরদিন স্কুলে জীববিজ্ঞান ক্লাসে শিক্ষিকার দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিলি জোর পায়ে জমাট বাধা রক্ত সেই সঙ্গে অস্বাভাবিকভাবেই ফুলে যাওয়া অংশ৷ এক প্রকার জোর করেই তিনি বিলি জো'কে চিকিৎসকের কাছে পাঠান৷

চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পরই শুরু হয় চিকিৎসা৷ চিকিৎসকরা তিনটি বিভিন্ন ধরণের জমাট বাধা রক্তের চাকা দেখতে পান বিলি জো'র পায়ে৷

23.09.2009 DW-TV Fit & Gesund blut

রক্ত জমাট বাধে পায়ের বিভিন্ন পেশিতে

বিভিন্ন জরিপে জানানো হয়, ৪০ বছরের নীচে যাদের শরীরে কোন কারণ ছাড়াই জমাট বাধা রক্তের চাকা দেখা গেছে তাদের মধ্যে বেশির ভাগই মারা গেছে৷ ২০০৫ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত এ মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় এগার'শ৷ এর মধ্যে প্রায় ৬০ জনই মারা গেছে যাদের বয়স ২০ বছরের নীচে৷

প্রফেসর বেভারলি হান্ট জানান, থ্রম্বসিসের ব্যাথা অনেকই অনুভব করে, রক্ত জমাট বাধা অংশ দেখে কিন্তু গ্রাহ্য করে না৷ এই সমস্যা বেড়েই চলেছে৷ সাধারণ মানুষকে সচেতন করা সম্ভব হচ্ছে না৷ তিনি জানান, ‘‘আমার ক্লিনিকে অনেক অল্প বয়স্ক ছেলে মেয়েরা আসছে৷ সবার একই অভিযোগ - পায়ে ব্যাথা, কোন ব্যাথা পায়নি অথচ পা ফুলে রয়েছে৷ এগুলোই হচ্ছে মূল লক্ষণ৷ নিয়মিত চেকআপে থাকার পরামর্শ আমরা দিচ্ছি৷ সঙ্গে দিচ্ছি ব্লাড-থিনারের জন্য প্রয়োজনীয় ঔষধ৷''

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদন: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন