রোগীর কাছে প্রিয়জনকে নিয়ে আসে রোবট | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 19.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

রোগীর কাছে প্রিয়জনকে নিয়ে আসে রোবট

নাম তার মিত্র, অর্থাৎ বন্ধু৷ বন্ধুর মতোই হাসপাতালের করোনা রোগীদের সার্বক্ষণিক সহায়তায় নিবেদিত আছে সে৷

নতুন দিল্লির পাশের ‘যথার্থ সুপার স্পেশালিটি হসপিটাল’ কর্তৃপক্ষ করোনা রোগীদের সহায়তার জন্য নিয়োজিত করেছে রোবট মিত্রকে৷

তার কাজের তালিকাও বেশ লম্বা৷ কোনো মুমূর্ষু রোগী যখন প্রিয়জনকে দেখতে চান, সে ইচ্ছা পূরণ করতে হাজির হয়ে যায় মিত্র৷ কিংবা হাসপাতালের ডাক্তার-নার্সরা যখন রোগীকে দেখতে চান, তখনও ভরসা মিত্র৷   

করোনা রোগীদের সেরে উঠতে অনেক সময় লাগে৷ এ সময়টিতে রোগীরা নিজের পরিবার-পরিজনকে দেখার সুযোগ পান না৷ সার্বক্ষণিক সেবা দিয়ে রবোট মিত্র এ শুণ্যতাটিই পূরণ করছে, বলেন হাসপাতালটির ডাক্তার অরুন লাখানপাল৷

(Adnan Abidi/Reuters)

মিত্রর চোখে রয়েছে চেহারা চিহ্নিত করার বিশেষ প্রযুক্তি৷

ইনভেন্টো রবোটিকস নামে বেঙ্গালুরুর ছোট একটি কোম্পানি তৈরি করেছে এই রোবটট৷ ২০১৭ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথেও আলাপ হয়েছিল তার৷ সেই থেকে অনেকের কাছেই সে ‘মিত্র’ নামে পরিচিত৷

মিত্রর চোখে রয়েছে চেহারা চিহ্নিত করার বিশেষ প্রযুক্তি, যার মাধ্যমে সে রোগী, ডাক্তার কিংবা নার্সদের আলাদা করতে পারে৷

তার বুকে স্থাপন করা আছে একটি  ইলেকট্রনিক ট্যাবলেট৷ এর মাধ্যমে সে রোগীদেরকে তাদের প্রিয়জন, ডাক্তার কিংবা নার্সের সাথে যোগাযোগ করিয়ে দেয়৷ যখন কোনো রোগী প্রিয়জনকে দেখতে চান, মিত্র তখন সেই ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করে আর সাথে সাথে ঐ ব্যক্তির ছবি ভেসে ওঠে ট্যাবলেটের স্ক্রিনে৷

হাসপাতালটিতে ভর্তি হওয়া করোনা রোগী মাখনলাল কাজী বলেন, ‘‘আমরা সাধারণত আমাদের স্বাস্থ্যগত বিষয়ের প্রয়োজনীয় যোগাযোগ মিত্রের মাধ্যমেই করে থাকি৷ পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতেও সে আমাদের সাহায্য করে৷’’

আরআর/এসিবি (রয়টার্স)

এপ্রিলের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন