রেকর্ড-নিম্ন সমর্থন ম্যার্কেল সরকারের | জার্মানি ইউরোপ | DW | 19.10.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

রেকর্ড-নিম্ন সমর্থন ম্যার্কেল সরকারের

সরকারে থাকা জোটগুলোর সমর্থন যখন কমেই চলেছে, গ্রিন পার্টি এবং উগ্র ডানপন্থি এএফডি তাদের অবস্থান ক্রমশ মজবুত করছে৷ কিছু জার্মান এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হলেও অন্যরা পরিবর্তনকে গণতন্ত্রের জন্য ভালো বলেই মনে করছেন৷

শুক্রবার প্রকাশিত জার্মানির সর্বশেষ ডয়েচলান্ডট্রেন্ড জরিপ বলছে, ইতিহাসের সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে বর্তমান সরকারের জনপ্রিয়তা৷ চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের খ্রিষ্টীয় গণতন্ত্রী দল সিডিইউ এবং সামাজিক গণতন্ত্রী দল এসপিডি গত সপ্তাহের চেয়েও এক পয়েন্ট হারিয়েছে৷ ফলে সরকারের সমর্থন এসে দাঁড়িয়েছে ৩৯ শতাংশে৷

জার্মানির পাবলিক ব্রডকাস্টার এআরডি পরিচালিত জরিপ বলছে, এই রোববার ফেডারেল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে সিডিইউ পেতো কেবল ২৫ শতাংশ ভোট৷ এসপিডিকে ভোট দিতো ১৪ শতাংস জার্মানের সমর্থন৷

উগ্র ডানপন্থি দল অলটারনেটিভ ফর ডয়চলান্ড এএফডি ১৬ শতাংশ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে আছে৷

Infografik Sonntagsfrage 18.10.2018 EN

‘গ্র্যান্ড কোয়ালিশনের' এই পতনে লাভবান হয়েছে গ্রিন পার্টি৷ ২০১১ সালের নির্বাচনের পর থেকে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে দলটি৷ ১৯ শতাংশ জার্মান বলছেন, তাঁরা পরিবেশবাদী এই দলটিকেই ভোট দিতেন৷

বাভারিয়া রাজ্যের সাম্প্রতিক নির্বাচন থেকেও বেশ সাফল্য তুলে নিয়েছে গ্রিন পার্টি৷ রাজ্যটিতে সিডিইউ-এর সহযোগী খ্রিষ্টীয় সামাজিক ইউনিয়ন সিএসইউ প্রাধান্য ধরে রাখলেও ১২ অক্টোবরের নির্বাচনের পর তারা হারিয়েছে ১২ শতাংশ মানুষের সমর্থন৷ অন্যদিকে গ্রিন পার্টিক সমর্থন ২০১৩ সালের ৮ দশমিক ৬ শতাংশ থেকে ২০১৮ সালে ১৭ দশমিক ৫ শতাংশে পৌঁছে গেছে৷

জার্মানির ঐতিহ্যবাহী দলগুলোর জনপ্রিয়তা ক্রমাগত কমতে থাকায় ৫১ শতাংশ জার্মান উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন৷ একই সময়ে ৪৭ শতাংশ মানুষ মনে করেন, নতুন নতুন দলের উত্থান দেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশের জন্য ভালো ফল বয়ে আনবে৷

এডিকে/এসিবি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন