রাশিয়ার বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন ট্রাম্প | বিশ্ব | DW | 18.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

রাশিয়ার বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন ট্রাম্প

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে চোরাপথে উত্তর কোরিয়াকে জ্বালানিসহ অন্যান্য পণ্য সরবরাহ করছে রাশিয়া৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি এমন অভিযোগ আনলেন৷ তবে নীতিগতভাবে তিনি আলোচনার জন্য প্রস্তুত৷

উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ আরও বাড়াতে মার্কিন প্রশাসন ক্যানাডার সঙ্গে যৌথভাবে এক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল৷ চীন ও রাশিয়া তাতে অংশ নেয়নি৷ এবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি রাশিয়ার বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ আনলেন৷ তাঁর মতে, রাশিয়া জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে চলতে উত্তর কোরিয়াকে সাহায্য করে চলেছে৷ সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, ‘‘উত্তর কোরিয়ার ক্ষেত্রে রাশিয়া মোটেই আমাদের সাহায্য করছে না৷ চীন সাহায্য করলেও রাশিয়া সেই ঘাটতি পুষিয়ে দিচ্ছে৷''

উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন-এর সঙ্গে সরাসরি আলোচনার প্রশ্নে ট্রাম্প বলেন, এই মুহূর্তে এমন পদক্ষেপ নিয়ে তাঁর মনে সংশয় রয়েছে৷ নীতিগতভাবে তিনি আলোচনার জন্য প্রস্তুত৷ তবে তাতে সমস্যার সমাধান হবে কিনা, সে বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নয়৷ তাঁর পূর্বসূরিরাও এমন প্রচেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছেন৷ তিনি সে কারণে বিল ক্লিন্টন, জর্জ ডাব্লিউ বুশ ও বারাক ওবামাকে সেই ব্যর্থতার জন্য দায়ী করেন৷ ঠাট্টার সুরে তিনি বলেন, হয়তো তাঁরা জানতেন যে, এমন দুরূহ কাজ এমন কারো জন্য রেখে দিতে হবে, যিনি বুদ্ধির পরীক্ষায় সবচেয়ে ভালো ফল করবেন৷

আসন্ন শীতকালীন অলিম্পিককে কেন্দ্র করে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে ঘনিষ্ঠতাকে স্বাগত জানিয়েছেন ট্রাম্প৷

পশ্চিম ইউরোপের নিরাপত্তা সংস্থাগুলিকে উদ্ধৃত করে রয়টার্স ডিসেম্বর মাসে জানিয়েছিল যে, সম্প্রতি রাশিয়ার ট্যাংকার জাহাজ কমপক্ষে ৩ বার উত্তর কোরিয়াকে জ্বালানি সরবরাহ করেছে৷ আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা এড়াতে সমুদ্রেই পণ্য হস্তান্তর করা হয়েছিল৷

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছেন, জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার ফলে উত্তর কোরিয়া ক্ষতির মুখ দেখতে শুরু করেছে৷ রাশিয়া পুরোপুরি সহযোগিতা না করলেও সার্বিকভাবে কাজ হচ্ছে৷ ফলে শেষ পর্যন্ত উত্তর কোরিয়াকে আলোচনার টেবিলে আসতে হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন৷ তবে রাশিয়া চোরাপথে উত্তর কোরিয়ায় জ্বালানি ছাড়াও অন্য কিছু পণ্য সরবরাহ করছে বলে টিলারসন অভিযোগ করেন৷ 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন