1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
জো বাইডেন
ছবি: Jabin Botsford/Getty Images
সমাজউত্তর অ্যামেরিকা

রাশিয়ার জন্য মার্কিন আকাশপথ বন্ধ: বাইডেন

২ মার্চ ২০২২

প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনের প্রথম স্টেট অফ দ্য ইউনিয়ন বক্তৃতা। সেখানে পুটিনের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করলেন তিনি।

https://p.dw.com/p/47r6G

বিশ্বের একাধিক দেশের বিমানকে রাশিয়ার আকাশে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে আগেই জানিয়েছিল রাশিয়া। এবার অ্যামেরিকাও রাশিয়ার বিমান অ্যামেরিকার আকাশে ঢোকা বন্ধ করার কথা জানিয়ে দিল। প্রথম স্টেট অফ দ্য ইউনিয়নের বক্তৃতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই ঘোষণা দিলেন। একই সঙ্গে পুটিনের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ তুলে কার্যত হুমকি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বাইডেন বলেছেন, পুটিন যেভাবে ইউক্রেনে আক্রমণ চালাচ্ছেন, তা পরিকল্পিত। হঠাৎ করে এই সিদ্ধান্ত তিনি নেননি। কোনো রকম উসকানি ছাড়াই তিনি এই কাজ করেছেন বলে বাইডেনের অভিযোগ। একইসঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানিয়ে দিয়েছেন, অ্যামেরিকা যে কোনো অবস্থায় ইউক্রেনের পাশে থাকবে। তার বক্তব্য, শেষ পর্যন্ত শুভবুদ্ধির জয় হবে।

বাইডেনেরবক্তব্য, পুটিন যতই আক্রমণ চালান, তিনি বুঝে গেছেন, গোটা বিশ্বে রাশিয়া একঘরে হয়ে গেছে। গোটা বিশ্ব এভাবে তার থেকে সরে যাবে, পুটিন তা ভাবতেও পারেননি বলে এদিন বাইডেন দাবি করেছেন। রাশিয়াকে এর খেসারত দিতে হবে বলেও এদিন কার্যত হুমকি দিয়েছেন বাইডেন। একইসঙ্গে পুটিনের সহযোগীদেরও সতর্ক করেছেন তিনি।

মার্কিন কংগ্রেসের বক্তৃতায় প্রেসিডেন্টের দাবি, রাশিয়ার বিরুদ্ধে সবরকম নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। এবার তাদের জন্য আকাশপথও বন্ধ হলো। ইতিমধ্যেই বিশ্বের একাধিক দেশ রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তবে কংগ্রেসের বক্তৃতায় বাইডেন ফের একবার স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন, কোনোভাবেই রাশিয়ার বিরুদ্ধে মার্কিন সেনা লড়াইয়ে নামবে না। ইউক্রেনে গিয়ে যুদ্ধ করবে না মার্কিন সেনা। কিন্তু ন্যাটোকে সাহায্য করার জন্য মার্কিন সেনা ইউরোপে অবস্থান করবে।

মঙ্গলবার বাইডেন বলেছিলেন, গোটা বিশ্ব এভাবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে চলে যাবে, পুটিন তা ভাবতে পারেননি। অ্যামেরিকা এবং পশ্চিমা বিশ্বের শক্তি বুঝতে পারেননি পুটিন। এদিন সেই কথার পুনরাবৃত্তি করেছেন  তিনি।

এসজি/জিএইচ (এপি, এএফপি)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

এশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি গৌতম আদানির প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে গত সপ্তাহে রিপোর্ট প্রকাশ করে হিনডেনবার্গ৷

তিন দিনে আদানি গ্রুপের লোকসান ৬৫ বিলিয়ন ডলার

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান