রাশিয়ার আক্রমণে অন্তত ২৬২ শিশুর মৃত্যু | বিশ্ব | DW | 01.06.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউক্রেন

রাশিয়ার আক্রমণে অন্তত ২৬২ শিশুর মৃত্যু

৫০ লাখ ইউক্রেনীয় শিশুর প্রয়োজন ন্যূনতম সাহায্য। রিপোর্ট প্রকাশ করল ইউনিসেফ।

রাশিয়ার ইউক্রেন অভিযানে এখনো পর্যন্ত অন্তত ২৬২ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে জানালো জাতিসংঘের শিশু সংক্রান্ত সংস্থা ইউনিসেফ। দেশে থেকে যাওয়া এবং দেশের বাইরে পালিয়ে যাওয়া অন্তত পাঁচ মিলিয়ন অর্থাৎ, ৫০ লাখ শিশুর ন্যূনতম সাহায্য প্রয়োজন বলে রিপোর্টে প্রকাশ। এর মধ্যে ৩০ লাখ শিশু এখনো ইউক্রেনে। যাদের অনেকেই সামান্য খাবার এবং পানীয় জলটুকুও পাচ্ছে না। ২২ লাখ শিশু ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তাদের সামগ্রিকভাবে সাহায্য প্রয়োজন বলে ইউনিসেফের রিপোর্টে বলা হয়েছে।

রিপোর্টের দাবি, এখনো পর্যন্ত শতাধিক স্কুল ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়েছে। ১ জুন ইউক্রেন, রাশিয়া-সহ বহু দেশে শিশুদিবস পালন করা হয়। সেই উপলক্ষেই এই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ইউনিসেফ। তারা জানিয়েছে, আগামী ৩ জুন যুদ্ধের একশ দিন হবে। এই একশ দিনে ইউক্রেনের শিশুরা কী ভয়ংকরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার চিত্রই রিপোর্টে তুলে ধরা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউনিসেফের ডিরেক্টর ক্যাথেরিন রাসেল। তার কথায়, ''এই মুহূর্তে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা না হলে শিশুদের আরো ক্ষতি হবে। সে কথা মাথায় রাখা উচিত।''

রাশিয়াকে 'সন্ত্রাসী রাষ্ট্র' ঘোষণার আর্জি

রাশিয়ার বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে সহমত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলি। রাশিয়ার তেলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে মঙ্গলবারই নিষেধাজ্ঞার ষষ্ঠ প্যাকেজ জারি করেছে ইইউ। এবার নিষেধাজ্ঞার সপ্তম প্যাকেজ ঘোষণার দাবি জানালেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভালোদিমির জেলেনস্কি। রাশিয়াকে 'সন্ত্রাসী রাষ্ট্র' আখ্যা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

সিভিয়েরোদোনেৎস্ক দখলের চেষ্টায় রাশিয়া

জেলেনস্কি জানিয়েছেন, ''রাশিয়ার সঙ্গে বিশ্বের আর কোনো মুক্ত গণতান্ত্রিক দেশের সম্পর্ক থাকা উচিত নয়। রাশিয়ার একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র।'' ষষ্ঠ নিষেধাজ্ঞার প্যাকেজ জারি হওয়ার পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরো নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সপ্তম প্যাকেজ তৈরি হওয়া উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেছেন। একইসঙ্গে তার বক্তব্য, তেলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় রাশিয়ার বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হবে। এতদিন ধরে সেই অর্থেই তারা যুদ্ধ চালাচ্ছে।

ইউক্রেনকে উন্নত প্রযুক্তির রকেট সিস্টেম

ইউক্রেনকে উন্নত প্রযুক্তির রকেট সিস্টেম পাঠানোর কথা জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই রকেটের সাহায্যে অনেক দূরের লক্ষ্যবস্তুতে নিখুঁতভাবে আঘাত হানা যায়। ইউক্রেনের জন্য ৭০০ মিলিয়ন ডলারের অস্ত্রের প্যাকেজ ঘো,ণা করতে পারে অ্যামেরিকা। বুধবারই তা ঘোষমা হতে পারে। উন্নত প্রযুক্তির রকেট সিস্টেম তারই অংশ বলে মনে করা হচ্ছে।

অ্যান্টি মিসাইল, অ্যান্টি আর্মার ভেহিকল এবং অ্যান্টি ট্যাঙ্ক সিস্টেমও পাঠানো হবে ইউক্রেনকে, জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তারা। সম্প্রতি ইউক্রেন জানিয়েছে, দূরপাল্লার রকেট পেলেও তা দিয়ে তারা রাশিয়ার ভিতরে আক্রমণ চালাবে না। এই প্রতিশ্রুতির পরেই অ্যামেরিকা তাদের আধুনিক প্রযুক্তির রকেট সিস্টেম দিতে সম্মত হয়েছে বলে পেন্টাগনের দাবি।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স, এপি, এএফপি, ডিপিএ)