রানা প্লাজা বিপর্যয়ের চার বছর পরেও দুর্দশা কমেনি | বিশ্ব | DW | 24.04.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভাইরাল ভিডিও

রানা প্লাজা বিপর্যয়ের চার বছর পরেও দুর্দশা কমেনি

রানা প্লাজা ধসের চার বছর পর শ্রমিক সংগঠনের কর্মকর্তারা এখনও গার্মেন্টস শিল্পে কাজের পরিবেশের দুরবস্থার কথা বলছেন৷ শ্রমিকরা লেবার ইউনিয়নে যোগ দিতে ভয় পাচ্ছেন নিপীড়নের ভয়ে৷

২০১৩ সালের ২৪শে এপ্রিল বাংলাদেশ তথা বিশ্বের বস্ত্রশিল্পে একটি অভিশপ্ত দিন৷ রানা প্লাজা ধসে প্রাণ হারান ১,১৩৮ জন মানুষ৷ ভবনটিতে যে গার্মেন্টস কর্মীরা কাজ করতেন, তাদের অর্ধেকেরও কম প্রাণে বেঁচেছেন৷

ডয়চে ভেলের ওয়েব ভিডিওতে বেকার গার্মেন্টস কর্মী আশিক বলছেন, চাকরি না থাকায়, ঢাকা শহরের ভিতরে তিনি যে কীভাবে দিন কাটাচ্ছেন আর কীভাবে সংসার চালাচ্ছেন, তা তিনিই জানেন৷ তাঁর মতো দুঃখীদের দেখাশোনা করার কেউ নেই৷ যে দোকানে তিনি ধারে খেতেন, তারাও আর ধার দেয় না৷ ঠিকমতো ঘরভাড়াও দিতে পারছেন না তিনি৷

ভিডিও দেখুন 01:10

Bangladesh: Four years after Rana Plaza factory collapse, suffering remains

প্রতিবাদ করতে গেলে নিপীড়ন! আশিকের স্ত্রী রোহিনুর জানালেন, পুলিশ তাঁর স্বামীকে ধরার পর তিনি যখন জিজ্ঞাসা করেন, কেন তাঁর স্বামীকে ধরা হচ্ছে? তখন পুলিশ তাকে বেশি কথা না বলে ‘চুপচাপ বাসায় গিয়ে ঘুমাতে' বলে৷

দাবি আছে, প্রতিবাদ আছে, সঙ্গে আছে ভয়৷ আশিকের এক সহকর্মী বললেন, মালিক তাদের পাওনা দিচ্ছে না, তবুও একটা কথা বলার সাহস কারো নেই - তাঁর নিজের তো নয়ই, অন্য কোনো শ্রমিকের আছে বলেও তিনি মনে করেন না৷

এসি/এপিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন