যৌন হয়রানির ঘটনায় ‘অবহেলা′, সেভ দ্য চিলড্রেন প্রধানের পদত্যাগ | NRS-Import | DW | 24.12.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

যৌন হয়রানির ঘটনায় ‘অবহেলা', সেভ দ্য চিলড্রেন প্রধানের পদত্যাগ

পদত্যাগ করলে্ন যুক্তরাজ্যের সেভ দ্য চিলড্রেনের প্রধান পিটার বেনেট জোনস৷ যৌন হয়রানি বিষয়ক ঘটনা গুরুত্ব না দেয়ার অভিযোগে তাঁর এই পদত্যাগ৷

আগামী মাস থেকে  নতুন চেয়ারম্যান দায়িত্ব নেবেন৷ পিটার বেনেট জোনসের বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়, প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে যৌন কেলেঙ্কারি বিষয়ক প্রতিবেদনে তাঁর যতটুকু গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন ছিল, তা দেননি৷ বরং এমন একটি অভিযোগ তিনি প্রত্যাহার করে নেন৷ বিষয়টি নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয়৷

শনিবার এক বিবৃতিতে সেভ দ্য চিলড্রেন জানায়, স্বাধীন ও নিরপেক্ষ একটি তদন্ত কমিটিও তাঁর বিরুদ্ধে একই অভিযোগ তুলেছে৷ তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, যৌন হয়রানি বিষয়ক একটি অভিযোগপত্রে তাঁর পাশ কাটিয়ে যাওয়া মন্তব্য নজরে এসেছে৷

পিটার ব্যানেট জোন্সকে সাবেক প্রধান নির্বাহী জাস্টিন ফোরসিথ ও সাবেক পরিকল্পনা প্রধান ব্রেনডান কক্সের বিরুদ্ধে আসা যৌন হয়রানি অভিযোগ পর্যালোচনা করতে দেওয়া হয়৷ পর্যবেক্ষণের পর তাঁর দেয়া সেই প্রতিবেদন নিয়েই ওঠে অভিযোগ৷

বিষয়ক ঘটনায় কয়েক বছরে দাতব্য সংস্থাগুলোর শীর্ষ কর্তাব্যক্তিদের পদত্যাগ লক্ষণীয়৷ চলতি বছরের শুরুতেই অক্সফামের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যৌনকর্মী ব্যবহারের অভিযোগ উঠে৷ ২০১০ সালে ভূমিকম্পের পর হাইতিতে এই কাণ্ড ঘটে৷ অক্সফাম প্রধান নির্বাহী মার্ক গোল্ড রিং এ বছরই সেই কাণ্ডের জের ধরে পদত্যাগ করবেন৷

গত সপ্তাহে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়্ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, উগান্ডায় গৃহকর্মীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার কারণে আলী খামিস নামে এক ব্রিটিশ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে৷ প্রতিষ্ঠানটি এ-ও উল্লেখ করে যে, আলি খামিসের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির কোনো অভিযোগ নেই৷ তবে প্রাতিষ্ঠানিক মর্যাদা এবং পেশাগত সম্মান ধরে না রাখতে পারার দায়ে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে৷

 এফএ/এসিবি (রয়টার্স) 

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়