যৌন হয়রানির অভিযোগ অস্বীকার করলেন ব্রিটনি স্পিয়ার্স | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 10.09.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

যৌন হয়রানির অভিযোগ অস্বীকার করলেন ব্রিটনি স্পিয়ার্স

সেই ২০০৬ সালের জুন মাসের কথা৷ ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা তখন জনপ্রিয় গায়িকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স৷ গানের বাজার বেশ ভালোই যাচ্ছিলো৷ ঠিক সেই সময়ে তিনি হঠাৎ এক কান্ড করে আলোচনার শীর্ষে চলে আসেন৷

default

ব্রিটনি স্পিয়ার্স

পুরো নগ্ন হয়ে হার্পাস বাজার নামের একটি ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ মডেল হন৷ নানা আলোচনা-সমালোচনা একে ঘিরে৷ এবার তিনি আরেক বির্তকে জড়ালেন৷ না, এক বচন বলাটা ঠিক হলো না, বলা যাক বহুবচনে৷

ব্রিটিশ এই গায়িকার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন তাঁরই দেহরক্ষী৷ ২৯ বয়স্ক এই দেহরক্ষীর নাম ফার্নান্দো ফ্লোরেস৷ তিনি জানান, ব্রিটনি প্রায়ই নগ্নাবস্থায় তাঁর সামনে হাঁটতো এবং তাঁকে বেডরুমে যাওয়ার জন্য আহ্বান করতো৷ ব্রিটনির সঙ্গে কাজ করাকে দুঃস্বপ্ন হিসেবে অভিহিত করেন ফ্লোরেস৷ তবে ২৮ বছর বয়সী এই পপতারকা বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এই অভিযোগটিকে কল্পনাপ্রসূত এবং ভিত্তিহীন বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন৷ বলেছেন, তাঁর এবং

Sexismus in der Werbung

হার্পাস বাজার ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে ব্রিটনি (ফাইল ছবি)

তাঁর পরিবারের ক্ষতি করতে বিশেষ একটি মহল উঠে পড়ে লেগেছে৷ প্রাক্তন দেহরক্ষীর এই অভিযোগের প্রসঙ্গে ব্রিটনির আরও বক্তব্য হচ্ছে, এই ধরণের ভিত্তিহীন অভিযোগ করে ফ্লোরেস টুপাইস কামানোর ধান্দা করছে, যা ফ্লোরেসের স্বপ্নই থেকে যাবে৷ তবে বিষয়টি যে আদালতে নিস্পত্তি হবে সেই কথা জানাচ্ছে মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো৷

এদিকে, যৌন হয়রানির অভিযোগের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার শিশু নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এ তারকার বিরুদ্ধে৷ অভিযোগ দুই সন্তান, ৫ বছর বয়সী শেন পিটার্সন এবং ৪ বছর বয়সী জেডিন জেমসকে শারীরিক নির্যাতনের৷ আর যে বিষয়টি মনে রাখার মতো তা হলো এই অভিযোগটিও করেছেন সেই প্রাক্তন দেহরক্ষী ফ্লোরেসই৷ বলছেন, তিনি নিজের চোখে দেখেছেন ব্রিটনি তার সন্তানদের পেটাচ্ছেন৷ লস এঞ্জেলেসের চাইল্ড প্রটেকশন এজেন্সি খুব শিগগিরই ব্রিটনিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে যাচ্ছে বলেই খবর৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

ইন্টারনেট লিংক