যৌন নির্যাতন বন্ধে ‘চার্চের ব্যর্থতা’, জার্মান কার্ডিনালের পদত্যাগ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 06.06.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

যৌন নির্যাতন বন্ধে ‘চার্চের ব্যর্থতা’, জার্মান কার্ডিনালের পদত্যাগ

পোপের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন জার্মানির সবচেয়ে জ্যেষ্ঠ ক্যাথলিক যাজকদের একজন মিউনিখের কার্ডিনাল রাইনহার্ড মার্ক্স৷ চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, গির্জার সদস্যদের সংঘটিত যৌন নির্যাতনে নিজের ব্যর্থতার দায়টুকু তিনি নিতে চান৷

পোপ ফ্রান্সিসের কাছে দেয়া চিঠিতে মার্ক্স জানিয়েছেন, তিনি মিউনিখ এবং ফ্রাইসিং এর আর্চবিশপের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করছেন৷ গির্জা এখন একটি ‘কানা গলিতে' পৌছে গেছে বলেও মনে করেন তিনি৷ তার এই পদত্যাগের ঘটনা নতুন শুরুর জন্য গির্জাকে উৎসাহিত করবে বলেও মনে করেন তিনি৷

নিজের সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিয়ে পোপ ফ্রান্সিসকে দেয়া চিঠিতে মার্ক্স লিখেছেন, ‘‘গত কয়েক দশক ধরে গির্জার কর্মকর্তাদের দ্বারা সংঘটিত যৌন নির্যাতনে ফলে যে বিপর্যয় ঘটেছে, আমি তার দায় ভাগ করে নিতে চাই৷''

মার্ক্স জানান, গত ১০ বছরের বিভিন্ন তদন্ত ও প্রতিবেদন দেখে এটা তার কাছে স্পষ্ট হয়েছে যে ক্যথলিক চার্চে কেবল ‘ব্যক্তিগত এবং প্রশাসনিক দুর্বলতা' নয় বরং ‘প্রাতিষ্ঠানিক ও পরিচালনাগত' দুর্বলতাও রয়েছে৷

তিনি লিখেছেন, ‘‘সাম্প্রতিক বিভিন্ন আলোচনায় দেখা গেছে অনেকেই এই সংকটে নিজেদের এবং প্রতিষ্ঠানের দায় স্বীকার করতে চান না এবং এর ফলে তারা যেকোনো সংস্কারের বিরোধিতা করেন৷’’ পোপকে ২১ মে লেখা এই চিঠিটি প্রকাশ করা হয় শুক্রবার৷

চিঠি প্রকাশ করার ব্যাপারে পোপের পক্ষ থেকে অনুমতি দেয়া হয়েছে৷ তবে ভ্যাটিকান থেকে কোনো উত্তর আসার আগ পর্যন্ত তাকে পদে বহাল থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে৷

এর আগেও গির্জার কর্মকর্তাদের যৌন নির্যাতনের ঘটনায় সরব ছিলেন রাইনহার্ড মার্ক্স৷ গির্জার পক্ষ থেকে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি৷ যৌন নির্যাতন বিষয়ে গির্জার বক্তব্যের প্রতিবাদে এপ্রিলে ফেডারেল ক্রস অব মেরিট পদক প্রত্যাখান করেন মার্ক্স৷অ

এডিকে/ (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন