যুক্তরাষ্ট্রে সিনাগগে গুলি, নিহত এক | বিশ্ব | DW | 28.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে সিনাগগে গুলি, নিহত এক

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের পোয়েতে ইহুদিদের একটি ধর্মীয় উপাসনায় বা সিনাগগে বন্দুক নিয়ে হামলার ঘটনায় এক জন নিহত ও তিনজন আহত হবার ঘটনা ঘটেছে৷ ১৯ বছর বয়সি এক যুবককে আটক করা হয়েছে৷

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্যান ডিয়েগোর বাইরে শনিবারের এই হামলায় নিহত হন এক নারী৷ এছাড়া একজন রাব্বি (ধর্মীয় শিক্ষক)-সহ এক কিশোরী ও দু'জন পুরুষ আহত হয়েছেন৷
পালোমার হেলথ মেডিকেল হসপিটালের মুখপাত্র ডেরিল আকোস্টা সাংবাদিকদের জানান যে, দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে আহত অবস্থায় চারজনকে ভর্তি করা হয়েছিল সেখানে৷
স্যান ডিয়েগো কাউন্টি শৈরিফ উইলিয়াম গোরে সংবাদ সম্মেলনে জানান, হামলাকারী একজন ‘সাদা' যুবক এবং একটি এআর ধরনের অ্যাসল্ট অস্ত্র ব্যবহার করেন৷
১৯ বছর বয়সি এক যুবককে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়েছে৷

USA Kalifornien Schüsse in Synagoge

সন্দেহভাজন যুবকের খোঁজে এক বাড়িতে হানা দিচ্ছে পুলিশ


প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মূলত ইহুদিবিদ্বেষ থেকেই হামলা চালানো হয়েছে৷ তবে গোরে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি৷ শুধু এটুকুই বলেছেন যে, সামাজিক গণমাধ্যমে ঐ যুবক একটি ইহুদি বিদ্বেষমূলক খোলা চিঠি প্রকাশ করেছিলেন৷
যে চিঠিটি তিনি প্রকাশ করেছিলেন সেই চিঠিতে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলা ও যুক্তরাষ্ট্রের পিটবুর্গের ট্রি অফ লাইফ সিনাগগে হামলার ঘটনায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করা হয়েছে৷ এছাড়া গত মাসে ক্যালিফোর্নিয়ার এসকোন্ডিডোতে একটি মসজিদে আগুন লাগানোর দায় স্বীকার করা হয়েছে৷ সেই আগুনে অবশ্য হতাহতের ঘটনা ঘটেনি৷
‘‘তার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টগুলোর কপি আমাদের কাছে আছে এবং আমরা সেগুলোর সত্যাসত্য যাচাই করবো এবং তদন্তকাজে ব্যবহার করব,'' বলেন গোরে৷


এই ঘটনায় আক্রান্তদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ তিনি এই ‘হেইট ক্রাইম'-এর নিন্দা জানান৷
জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রী হাইকো মাস এক টুইটার বার্তায় লেখেন, ‘‘আমরা আবারো শঙ্কাজনক ইহুদি বিদ্বেষের উদাহরণ দেখলাম৷ পোলওয়ে সিনাগগে হামলার অর্থ আমাদের সবার ওপর হামলা৷ আমরা নিহতের স্বজন ও আহতদের প্রতি সহমর্মিতা জানাই৷''
ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট রয়ভেন রিভলিন বলেন যে, ইহুদি বিদ্বেষ আজও সব জায়গাতেই আছে৷
ঠিক ছয়মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রের পিটবুর্গে আরেকটি সিনাগগে হামলায় ১১ জন মারা যান৷

জেডএ/ডিজি (এএফপি, এপি, ডিপিএ, রযটার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন