যুক্তরাষ্ট্রে মসজিদে হামলার দায় স্বীকার | বিশ্ব | DW | 25.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে মসজিদে হামলার দায় স্বীকার

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় মসজিদে হামলার দায় স্বীকার করেছেন ‘হোয়াইট র‌্যাবিটস’ নামে একটি উগ্রপন্থি সংগঠনের দুই সদস্য৷ অ্যামেরিকা থেকে মুসলমানদের ভয় দেখিয়ে তাড়ানোর জন্য এই হামলা করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন তারা৷

হামলার কথা স্বীকার করা দুই যুবক মাইকেল ম্যাকহোর্টার (২৯) ও জোই মরিস (২৩)-এর বিরুদ্ধে আরো কয়েকটি হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে৷ এরমধ্যে গর্ভপাত করানো হয় এমন ক্লিনিকে বোমা হামলার ঘটনা অন্যতম৷ এছাড়া দু'টি বোমা হামলার চেষ্টা, সশস্ত্র ডাকাতি ও একটি রেলওয়ে কোম্পানি থেকে চাঁদাবাজিরও অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে৷

বৃহস্পতিবার মিনেসোটা পুলিশ জানায়, ম্যাকহোর্টার স্বীকার করেছে যে, হোয়াইট র‌্যাবিটসের পক্ষ থেকে ২০১৭ সালের আগস্টে মিনেসোটার দারুল ফারুক ইসলামিক সেন্টারে বোমা হামলা চালানো হয়৷ এর উদ্দেশ্য ছিল মুসলিমদের জানানো যে, তাদেরকে যুক্তরাষ্ট্র চায় না৷ সেই হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি, তবে মসজিদটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল৷

মরিস ও ম্যাকহোর্টারকে ৩৫ বছরের কারাদণ্ড দিতে যাচ্ছে আদালত৷ তবে দায় স্বীকার করার কারণে সাজা কিছুটা কমতে পারে৷ ঐ হামলার মূল হোতা হোয়াইট র‌্যাবিটসের প্রতিষ্ঠাতা মাইকেল হ্যারি সম্পর্কে কোনো তথ্য জানায়নি পুলিশ৷ তাকে আদৌ গ্রেফতার করা হয়েছে কিনা, সেটিও জানা যায়নি৷ মাইকেল হ্যারি ইলিনয় রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ছিলেন বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে৷

অ্যামেরিকার ইসলাম বিষয়ক কাউন্সিলের মিনেসোটার প্রধান জয়লানি হোসেন বলেন, ‘‘হামলাকারীদের স্বীকারোক্তি এই অঞ্চলের মুসলমানদের স্বস্তি দেবে৷’’ তিনি বলেন, ‘‘এসব উগ্রপন্থি সংগঠন ইসলামপন্থিদের বিষয়ে সহনশীল নয়, তাদের অনেক প্রকাশিত ব্লগ ও মতামতে সব সময় মুসলমানদের যুক্তরাষ্ট্রের জন্য হুমকি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়৷’’

এফএ/এসিবি (এপি, এফএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন