যুক্তরাজ্যে আসাঞ্জের কারাদণ্ড | বিশ্ব | DW | 01.05.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্য

যুক্তরাজ্যে আসাঞ্জের কারাদণ্ড

লন্ডনের একটি আদালত উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জকে ৫০ সপ্তাহের কারাদণ্ড দিয়েছে৷ জামিনের শর্ত ভেঙে ইকুয়েডর দূতাবাসে অবস্থান করায় এই সাজা দেয়া হয়েছে তাঁর৷

বুধবার শুনানিতে বিচারক ডেবোরাহ টেলর বলেন, আইন ভঙ্গ করে আসামী বড় অপরাধ করেছেন৷ তাই ৪৭ বছর বয়সি আসাঞ্জকে সর্বোচ্চ এক বছরের সাজা দেয়া হয়েছে৷ এদিকে, আসাঞ্জের মুক্তির দাবিতে আদালতের বাইরে অবস্থান নেন বিক্ষোভকারীরা৷

উইকিলিকস ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অসংখ্য গোপন নথি ফাঁস করে সারা বিশ্বে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন জুলিয়ান৷ ২০১২ সালে সুইডেনে বহিঃসমর্পণ ঠেকাতে যুক্তরাজ্যে জামিনের শর্ত ভেঙে তিনি ইকুয়েডরের কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় চান৷

এরপর থেকে যুক্তরাজ্যোর ইকুয়েডর দূতাবাসে রাজনৈতিক আশ্রয়ে ছিলেন তিনি৷ প্রায় সাত বছর পর গত মাসে ইকুয়েডর রাজনৈতিক আশ্রয় তুলে নিলে আসাঞ্জকে গ্রেপ্তার করে যুক্তরাজ্য পুলিশ৷ জামিনের শর্ত ভঙ্গ করার অপরাধে তাঁকে এই ৫০ সপ্তাহের সাজা দেয়া হলো৷

উইকিলিকসের মাধ্যমে আফগানিস্তান, ইরাকসহ বিভিন্ন দেশে যু্দ্ধ সংক্রান্ত গোপন মার্কিন সরকারি নথি ফাঁস করে দেবার পর আসাঞ্জের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র৷ সে সময় মিত্রদের কাছে সহযোগিতা চাইলে সুইডেন আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিল৷

আসাঞ্জ শুরু থেকেই আসছেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন৷

যুক্তরাষ্ট্র এছাড়াও তাদের মিলিটারি কম্পিউটার সিস্টেমে অনধিকার প্রবেশের অভিযোগ তুলেছে৷ এই অভিযোগের কারণে তাঁকে সে দেশটির কাছে সমর্পণ করার আশঙ্কা রয়েছে৷ বৃহস্পতিবার এ ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের আদালতে শুনানি হবার কথা রয়েছে৷

জেডএ/এসিবি (রয়টার্স/এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন