মোদী সরকার জানে না, কত পরিযায়ী শ্রমিক মৃত | বিশ্ব | DW | 15.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

মোদী সরকার জানে না, কত পরিযায়ী শ্রমিক মৃত

লকডাউনের পর দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে গিয়ে কতজন পরিযায়ী শ্রমিক মারা গেছেন, তার কোনো তথ্য মোদী সরকারের কাছে নেই। তাই মৃতদের ক্ষতিপূরণ দেয়ারও প্রশ্ন নেই।

লকডাউনের পর দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে গিয়ে কতজন পরিযায়ী শ্রমিক মারা গেছেন, তার কোনো তথ্য মোদী সরকারের কাছে নেই। তাই মৃতদের ক্ষতিপূরণ দেয়ারও প্রশ্ন নেই।

সংসদের প্রথম দিনেই চমকে দেয়ার মতো স্বীকারোক্তি কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রী সন্তোষ কুমার গাঙ্গোয়ারের। লোকসভায় একটি লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি স্বীকার করেছেন, লকডাউনের পর সারা দেশে কতজন পরিযায়ী শ্রমিক বাড়ি ফেরার সময় মারা গেছেন তার কোনো তথ্য তাঁর মন্ত্রকের কাছে নেই। তাই তাঁদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না।

তবে যে তথ্য তিনি দিতে পেরেছেন, তা হলো, বিভিন্ন রাজ্য থেকে এক কোটিরও বেশি পরিযায়ী শ্রমিক লকডাউনের পর নিজের ঘরে ফিরেছেন।

গত জুন মাসে সেভ লাইফ ফাউন্ডেশনের রিপোর্ট উল্লেখ করে হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছিল, লকডাউনের পর পথ দুর্ঘটনায় ১৯৮ জন পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। ফাউন্ডেশনের রিপোর্টে বলা হয়েছিল, পায়ে হেঁটে, সাইকেলে বা ট্রাক বা বাসে করে আসতে গিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকরা মারা গেছেন। তাঁরা যখন একেবারে ক্লান্ত হয়ে রাস্তার পাশে শুয়ে পড়েছেন, তখন গাড়ি বা বাস তাঁদের পিষে দিয়ে গিয়েছে। এই রিপোর্ট প্রকাশিত হয় জুনের গোড়ায়।

এরকম বেশ কিছু ঘটনা উত্তর প্রদেশে হয়েছে। তাছাড়া অভুক্ত অবস্থায় বা সামান্য কয়েকটি বিস্কিট খেয়ে হাঁটতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকে। পরে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালু হয়। সেই ট্রেনে আসতে গিয়েও বেশ কিছু পরিযায়ী শ্রমিক মারা যান। কতজন শ্রমিক মারা গেছেন, সেই তথ্য জোগাড় করাটা সরকারের কছে বড় কোনো সমস্যা নয়। রাজ্যের কাছে জানতে চাইলেই পাওয়া যেত।

তখনই বিরোধী দলগুলি বারবার অভিযোগ করেছিল যে, পরিযায়ীদের সমস্যা, তাঁদের মৃত্যু নিয়ে সরকার উদাসীন। মাত্র চার ঘণ্টার নোটিসে লকডাউনের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সহায়সম্বলহীন পরিযায়ী শ্রমিকরা কীভাবে বাড়ি ফিরবেন তার কথা তিনি ভাবেননি।

লোকসভায় শ্রমমন্ত্রীর এই জবাবের পর আবার সোচ্চার হয়েছেন বিরোধীরা। রাহুল গান্ধী টুইট করে বলেছেন, ''মোদী সরকার জানে না, কতজন পরিযায়ী শ্রমিকমারা গেছেন, লকডাউনের পর কতজনের চাকরি গেছে। সরকার যখন গণনা করেনি, তখন কি আদৌ কেউ মারা গেছেন? এটা খুবই দুঃখের যে এঁদের মৃত্যুতে সরকারের কিছু যায় আসে না। কিন্তু সারা বিশ্ব দেখেছে তাঁরা কীভাবে মারা গেছেন।''

কেরলের অর্থমন্ত্রীর টুইট, ''কেন্দ্র এই পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে একেবারেই চিন্তিত নয়।'' কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং-এর মতে, ''সরকার অন্ধ।''

জিএইচ/এসজি(এনডিটিভি)

বিজ্ঞাপন