মোদীর কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কার প্রতিবাদ | বিশ্ব | DW | 10.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

মোদীর কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কার প্রতিবাদ

নরেন্দ্র মোদীর বারাণসীতে গিয়ে সিএএ নিয়ে তাঁকে চ্যালেঞ্জ জানালেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ দেখা করলেন আহত প্রতিবাদীদের সঙ্গে৷ গেলেন বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্য়ালয়েও৷

মায়াবতী চুপচাপ৷ অখিলেশ যাদব বিবৃতি দেওয়ার বাইরে বেশি কিছু করছেন না। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে যে রাজনৈতিক নেত্রীকে বিক্ষোভ, প্রতিবাদ করতে দেখা যাচ্ছে, তিনি হলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ তাঁকে দেখা যাচ্ছে অত্যাচারিত দলিতদের পাশে দাঁড়াতে বা সিএএ নিয়ে  বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে থাকতে৷  প্রিয়াঙ্কা শুক্রবার বেছে নিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনকেন্দ্র বারাণসী৷ চারঘন্টা ধরে সেখানে ঘুরলেন৷ প্রথমে গেলেন গুরু রবিদাস মন্দিরে৷ দলিতদের আরাধ্য দেবস্থানে পুজো দিলেন৷ তারপর নৌকো করে পঞ্চগঙ্গা ঘাটে৷ সেখানে সিএএ নিয়ে প্রতিবাদ করতে গিয়ে আহতদের সঙ্গে দেখা করলেন৷ মৃতের পরিবারের লোকেদের সঙ্গে কথা বললেন৷ সেখান থেকে গেলেন বেনারস হিন্দু বিশ্বিবদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রদের সঙ্গে কথা বলতে৷

একসময় উত্তর প্রদেশ রাজনৈতিক বিক্ষোভ, আন্দোলনের জন্য বিখ্যাত ছিল৷ কিন্তু সম্প্রতি সেই প্রবণতায় বদল দেখা যাচ্ছে৷ ক্রমশ জমি হারাতে থাকা মায়াবতী আন্দোলনের মধ্যে খুব একটা যাচ্ছেন না৷ মুলায়মের বয়স হয়েছে৷ তরুণ অখিলেশও বিক্ষোভ-প্রতিবাদে বিশেষ নেই৷ তাঁরা ক্রমশ বিবৃতিসর্বস্ব রাজনীতির ভিতর ঢুকে যাচ্ছেন৷ জাতিগত রাজনীতিতে অভ্যস্ত এই দুই দল বদলে যাওয়া পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেদের মানাতে হিমশিম খাচ্ছেন৷ কংগ্রেস নেতা শুভঙ্কর সরকার ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ''ভয় দেখিয়ে মায়াবতী, অখিলেশকে চুপ করানো যেতে পারে৷ কিন্তু প্রিয়াঙ্কাকে যায়নি৷ সে কারণেই উত্তর প্রদেশে শুধু তাঁকেই আন্দোলন করতে দেখা যাচ্ছে৷ তাঁর আন্দোলনের ক্ষেত্রে এখন সব থেকে বড় কথা হল, ভয় না পেয়ে প্রতিবাদ করা৷ পরে কংগ্রেস অবশ্যই এর সুফল পাবে৷'' 

রাজনীতিতে জায়গা কখনওই খালি থাকে না৷ মায়াবতী-অখিলেশ জায়গা ছেড়ে দিলে অন্য কেউ তাতে আসতে বাধ্য৷ সাংবাদিক ও উত্তর প্রদেশ বিশেষজ্ঞ শরদ গুপ্ত ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, ''যোগীর বিরোধিতায় প্রিয়ঙ্কাকেই কিছুটা সক্রিয় দেখা যাচ্ছে৷ যে রকম অবস্থা চলছে, তাতে পরবর্তীকালে হয় কোনও নতুন দল বিরোধীদের জায়গা দখল করতে পারে বা প্রিয়াঙ্কার নেতৃত্বে কংগ্রেস জমি দখল করতে পারে৷ সিংহের এলাকায় ঢুকে প্রিয়ঙ্কার প্রতিবাদও তাই গুরুত্বপূর্ণ৷''

সিএএ নিয়ে প্রতিবাদ দেশের বিভিন্ন শহরে শুক্রবারও হয়েছে৷ হায়দরাবাদে আসাদুদ্দিন ওয়েইসির দল প্রতিবাদ জানিয়েছিল৷ আগে থেকেই তাই স্কুল কলেজে ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়৷ অনেক জায়গায় দোকান-বাজার বন্ধ ছিল৷ দিল্লিতে জামা মসজিদেও প্রতিবাদ দেখানো হয়েছে৷ প্রতিদিনই প্রতিবাদ চলছে জেএনইউতে৷ বিক্ষোভের এই আবহে বারাণসীতে প্রতিবাদকারীদের পাশে থেকে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও উত্তর প্রদেশে বিজেপি-বিরোধিতার জায়গাটা দখল করতে চাইছেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন