মেক্সিকোতে সাংবাদিক হত্যা | বিশ্ব | DW | 10.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

মেক্সিকো

মেক্সিকোতে সাংবাদিক হত্যা

রেললাইনের ধারে পাওয়া গেল এক সাংবাদিকের মাথাহীন লাশ৷ এই খুন নতুন করে আলোচনায় আনছে মেক্সিকোতে সাংবাদিকদের নিরাপত্তাহীনতার প্রশ্ন৷

ইউলিও ভালদিভিয়া ‘এল মুন্দো দে ভেরাক্রুজ’ পত্রিকায় নিয়মিত অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদন লিখতেন৷ তাঁর বেশিরভাগ প্রতিবেদনেই থাকতো ভেরাক্রুজ রাজ্যে বিভিন্ন অপরাধচক্রের সক্রিয়তার কথা৷ এই ধরনের সাংবাদিকতাকে স্থানীয়রা ‘নোতা রোহা’ সাংবাদিকতা বলে জানেন৷ স্প্যানিশ ভাষায় ‘নোতা রোহা’র অর্থ লাল নোট, যা এই অঞ্চলের অবৈধ অর্থের লেনদেন ও খুনোখুনির সংস্কৃতির ইঙ্গিত দেয়৷

বুধবার ভেরাক্রুজ রাজ্যের ছোট শহর টেজোনাপার একটি রেল লাইনের ধারে ভালদিভিয়ার মস্তিষ্কবিহীন লাশ পাওয়া যায়৷

এল মুন্দো পত্রিকার এক কর্মচারী বলেন, প্রাথমিকভাবে ট্রেনের তলায় চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে ভালদিভিয়ার, এমন ধারণা করা হলেও পরে অন্য তথ্য জানা যায়৷

মেক্সিকোতে সাংবাদিকদের নিরাপত্তাহীনতা

ভালদিভিয়ার মৃত্যু চলতি বছরে চতুর্থ সাংবাদিক হত্যার ঘটনা, জানাচ্ছে এল ইউনিভার্সাল ও অন্যান্য স্থানীয় সংবাদসংস্থা৷ রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালে মেক্সিকোতে এটি পঞ্চম সাংবাদিক হত্যা৷ কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্টের পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৯ সালে সারা বিশ্বে খুন হওয়া মোট সাংবাদিকের অর্ধেকই ছিলেন মেক্সিকোর৷

ভেরাক্রুজ মেক্সিকোর সবচেয়ে বিপজ্জনক অঞ্চলগুলোর অন্যতম৷ মাদকব্যবসা রমরমিয়ে চলার পাশাপাশি সেখানে একাধিক অপরাধচক্র সক্রিয় রয়েছে বলে জানা যায়৷

মেক্সিকোর ‘কমিশন ফর দ্য অ্যাটেনশন অ্যান্ড প্রোটেকশান অফ জার্নালিস্টস’এর সাথে যুক্ত আনা পেরেজ ভালদিভিয়ার কাজের ঝুঁকির কথা মেনে বলেন, ‘‘তিনি (ভালদিভিয়া) এমন একটি জটিল জায়গায় কাজ করতেন যেখানে বেশ কিছু অপরাধচক্র রয়েছে৷ আমাদের খতিয়ে দেখতে হবে যে, তিনি এমন কোনো বিষয়ে অনুসন্ধান চালাচ্ছিলেন কিনা, যা এই সব গোষ্ঠীর রোষের কারণ হতে পারে৷’’

এসএস/এসিবি (রয়টার্স, এপি)

২০১৮ সালের অক্টোবরের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়