মূল্যবোধের অবক্ষয়ে আওয়ামী লীগের এমপিদের এমন ‘কীর্তি’ | বিশ্ব | DW | 19.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

মূল্যবোধের অবক্ষয়ে আওয়ামী লীগের এমপিদের এমন ‘কীর্তি’

আওয়ামী লীগের সাবেক এক এমপি সততার জন্য সবার শ্রদ্ধা কুড়ালেন৷ কিন্তু তাঁর কথা যেন ভুলিয়ে দিচ্ছেন কয়েকজন বর্তমান এমপি৷ তাঁদের কেউ শিক্ষার্থীদের বলছেন খুলি উড়িয়ে দেয়ার কথা, কেউ অপমান করছেন নিজের শিক্ষককে৷

default

ফুটপাথে হকার বসানোকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল নারায়ণগঞ্জ

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া এলাকার সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউসুফের অর্থের অভাবে চিকিৎসা হচ্ছিল না৷ প্রায় বিনা চিকিৎসায় তিনি মরতে বসেছিলেন৷ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে৷ মো. ইউসুফ রাজনীতির কারণে বিয়েও করেননি৷ রাজনীতি অন্তপ্রাণ এই মানুষটি সারাজীবন রাজনীতি করে নিজের চিকিৎসার টাকা পর্যন্ত উপার্জন করেননি৷ অথচ বর্তমান রাজনীতিকদের অনেকেই কোটিপতি৷ নির্বাচনের বছর চলছে৷ অথচ আওয়ামী লীগের যেসব এমপি সরকারকে বেকায়দায় ফেলছে, দলকে বেকায়দায় ফেলছে, তাদের ‘চিকিৎসার’ দায়িত্ব কে নেবে? বিশ্লেষকরা মনে করেন, দলীয় নেতা-কর্মীদের একটা অংশকে নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হলে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে এর মাশুল গুনতে হবে৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক হাফিজুর রহমান কার্জন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘একটা বড় ধরনের মূল্যবোধের অবক্ষয় আমরা লক্ষ্য করছি৷ আর এ কারণেই আগের সময়ের এমপিরা টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না৷ অন্যদিকে এখনকার এমপিদের অবস্থা তো আমরা দেখছিই৷’’ তাঁর মতে, ‘‘এই অবক্ষয় শুধু রাজনীতিবিদদেরই হয়েছে, এমন নয়৷ এটা সমাজের সব পেশার মানুষেরই হয়েছে৷ মো. ইউসুফ আদর্শিক রাজনীতির উদাহরণ৷ আর এখনকার এমপিরা মূল্যবোধের অবক্ষয়ের পর এমপিদের উদাহরণ৷’’

অডিও শুনুন 01:54
এখন লাইভ
01:54 মিনিট

একটা বড় ধরনের মূল্যবোধের অবক্ষয় আমরা লক্ষ্য করছি: হাফিজুর রহমান কার্জন

নারায়নগঞ্জে ফুটপাথে হকার বসানো নিয়ে মেয়র আইভি রহমানের সঙ্গে সরাসরি বিরোধে জড়িয়েছেন এমপি শামীম ওসমান৷ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রধান সড়কগুলো থেকে হকার উচ্ছেদ করা হচ্ছিল৷ উচ্ছেদ করা হকারদের জন্য হলিডে মার্কেটসহ বিভিন্ন স্থানে বিকল্প ব্যবস্থাও করা হয়েছিল৷ কিন্তু শামীম ওসমানের লোকজন উচ্ছেদকারীদের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে৷ একজন তো সরাসরি অস্ত্র নিয়ে মেয়র আইভি রহমানকে গুলি করতে যান বলে অভিযোগ৷

এর আগে আওয়ামী লীগের কক্সবাজার এলাকার এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল রামুতে একজন প্রবীণ শিককে লাঞ্ছিত করেছেন৷ সুনীল কুমার শর্মা নামের ওই শিক্ষককে জামার কলার ধরে গলা ধাক্কাও দেন তিনি৷ স্থানীয়রা বলছেন, সুনীল শর্মা ছিলেন এমপি সাইমুম সরওয়ার ও তার ভাই সোহেল সরওয়ার কাজলের শিক্ষক৷ এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁর ছেলে ঢাকায় একটি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক৷ ওই সংগঠন সাইমুমের পছন্দ মতো চলছে না৷ সাইমুমের কথা শোনেননি সুলীল শর্মার ছেলে সুজন শর্মা৷ ছেলেকে হুমকি দিতে এসে তার বাবাকে লাঞ্ছিত করলেন সাইমুম৷ সাইমুমের বড় ভাই রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহেলও প্রকাশ্যে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘‘তার ভাইয়ের উচিৎ শিক্ষকের কাছে মাফ চাওয়া৷’’

এর আগেও কক্সবাজার এলাকার এমপি বদি সরকারী কর্মকর্তাদের পিটিয়ে আলোচনায় আসেন৷ তার বিরুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের মদত দেয়ার অভিযোগও এসেছে খোদ সরকারী তরফ থেকে৷ টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগের এক নেতা হত্যার দায়ে আরেক এমপি আমানুর রহমান তো জেলেই আছেন৷ এমপিদের বিরুদ্ধে এমন অজস্র অভিযোগ৷ এর বাইরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ উঠছে অনেক৷

অডিও শুনুন 01:38
এখন লাইভ
01:38 মিনিট

যেসব এমপির বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ আছে, তারা আগামীতে মনোনয়ন পাবেন না: হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মুখপাত্র মাহবুব-উল-আলম হানিফ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘যেসব এমপির বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ আছে, তারা আগামীতে মনোনয়ন পাবেন না৷ এটা নিশ্চিত৷ আর একটা দেশে তো কিছু ঘটনা ঘটতেই পারে৷ তবে সরকার ব্যবস্থা নিচ্ছে কি-না সেটা মূল কথা৷ কোনো ঘটনায়ই ছাড় দেয়া হচ্ছে না৷ এমনকি আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী হলেও না৷ নারায়নগঞ্জের ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ইতিমধ্যে নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷ প্রশাসনকে বলা হয়েছে, দোষী যে-ই হোক, তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে হবে৷ ইতিমধ্যে কয়েকজন গ্রেফতার হয়েছে৷ অন্যরাও গ্রেফতার হবে৷ এখানে ছাড় দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই৷’’

গত এক সপ্তাহ আগে এম এইচ শমরিতা মেডিকেল কলেজের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি গালাগালি করে আলোচনায় এসেছেন সাবেক এমপি হাজি এম মকবুল হোসেন৷ মেডিকেল কলেজটির মালিক তিনি৷ ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ভাতা বৃদ্ধি ও বাড়তি ফি আদায় বন্ধসহ কয়েকটি দাবিতে বিক্ষোভ করছিলেন শিক্ষার্থীরা৷ সেখানে যান হাজি মকবুল৷ এরপর এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং খুলি উড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেন৷

অডিও শুনুন 02:07
এখন লাইভ
02:07 মিনিট

‘এখন রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করেন নিজের জন্য’

পুরনো একটি বিপণী বিতান ভেঙে প্রকাশ্যে জায়গা-জমি জবর দখলের অভিযোগ উঠে নওগাঁর সাপাহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলীর বিরুদ্ধে৷ সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদের উপর হামলা হামলা চালিয়ে মারপিট করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয় শাহজাহানের ক্যাডাররা৷

সাম্প্রতিক সময়ে আরো কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতার নামও সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে অনাকাঙ্খিত ঘটনার কারণে৷

এসব বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে মানবাধিকার কর্মী নূর খান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন ভর করেছে৷ রাজনীতি এখন আর রাজনীতিবিদদের হাতে নেই৷ আগে মানুষ রাজনীতি করত মানুষের জন্য৷ এখন রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করেন নিজের জন্য৷ এখন যারা এমপি, তাদের অধিকাংশই কোটি টাকার মালিক বা কোটি টাকা তিনি অপচয় করেন৷ এখন এই ধরনের রাজনীতিবিদদের কাছ থেকে আমরা কি আশা করতে পারি? এ কারণে সম্প্রতি যেসব ঘটনা ঘটেছে, সেটা তো ঘটবেই৷’’

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন