মুসলিমদের ওপর হামলার কারণে শ্রীলঙ্কায় ৮০ জন গ্রেপ্তার | বিশ্ব | DW | 15.05.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কা

মুসলিমদের ওপর হামলার কারণে শ্রীলঙ্কায় ৮০ জন গ্রেপ্তার

সোমবার মুসলমানদের মসজিদ ও দোকানপাটে সহিংস হামলা হয়েছিল৷ তবে শ্রীলঙ্কার সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র জানান, পরিস্থিতি এখন ‘পুরো নিয়ন্ত্রণে'৷ মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ৮০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷

২১ এপ্রিল তিনটি গির্জা ও তিনটি অভিজাত হোটেলে হামলার পর শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়৷ এর মধ্যে সোমবার উত্তর-পশ্চিমের বিঙ্গিরিয়া এলাকায় প্রায় দুই হাজার দাঙ্গাকারী মুসলমানদের মসজিদ ও দোকানপাটে হামলা চালায়৷ এই ঘটনায় একজন  প্রাণ হারান৷

ঘটনার পর মুসলমানদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ ঐ এলাকার মুসলিম নেতা এমআইএম সিদ্দিক এএফপিকে জানিয়েছেন, ‘‘আমাদের মানুষরা এখনো বাইরে যেতে ভয় পাচ্ছেন৷''

তবে পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে জানিয়ে বুধবার সামরিক মুখপাত্র সুমিথ আতাপাত্তু বলেন, ‘‘গতরাতে কোথাও কোনো সহিংস ঘটনা ঘটেনি৷ এছাড়া আমরা সোমবারের হামলার সঙ্গে জড়িতদের আটক করছি৷''

এদিকে, পুলিশের মুখপাত্র রুয়ান গুনাসেকেরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ৮০ জনের বেশি জনকে আটক করা হয়েছে৷ তাদের জরুরি আইনের আওতায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ ফলে অভিযুক্ত হলে তাদের সর্বোচ্চ দশ বছরের জেল হতে পারে৷

সংসদের স্পিকার কারু জয়সুরিয়া মুসলমানদের উপর হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন এবং সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন৷

এদিকে, সহিংসতা উসকে দিতে পারে এমন বার্তার প্রসার ঠেকাতে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ইউটিউব ও ইন্সটাগ্রাম আগেই ব্লক করেছিল সরকার৷ মঙ্গলবার এ তালিকায় টুইটারও যুক্ত করা হয়েছে৷

তবে সরকারের এসব উদ্যোগ সত্ত্বেও মুসলমানরা আতঙ্কে ভুগছেন৷ বুধবারও তাঁরা ঘরে থাকাকেই শ্রেয় মনে করছেন৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন