1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: AP

মুসলমানদের জীবনসঙ্গী খোঁজায় ইন্টারনেটে ডেটিং পোর্টাল

৩ মার্চ ২০১১

ইন্টারনেট আজকাল মানুষের জীবনের সর্বত্র জড়িয়ে রয়েছে৷ এমনকি পাত্রপাত্রীর বাজারেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে এই প্রযুক্তি৷ ২০০৭ সালে মুসলমানদের জীবনসঙ্গী খোঁজায় সাহায্যের জন্য জার্মানিতে একটি ইন্টারনেট পোর্টাল গড়ে তোলা হয়৷

https://p.dw.com/p/10ShD

ইন্টারনেটের এই ডেটিং পোর্টালে ইতোমধ্যেই তালিকাভুক্ত হয়েছেন ৯০ হাজার ইউজার বা ব্যবহারকারী৷ বেশিরভাগই জার্মানি, তুরস্ক, নেদারল্যান্ডস, অস্ট্রিয়া ও সুইজারল্যান্ডের মানুষ৷ তবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও সৌদি আরবের লোকজনও খুঁজে পাওয়া যাবে এই পোর্টালে৷ অল্প সময়ের মধ্যেই মুসলিম পাত্রপাত্রী খোঁজার এই ইন্টারনেট পোর্টালটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷

পাত্রপাত্রী খোঁজার অন্যান্য পোর্টাল থেকে এটির পার্থক্য হল, এখানে ইসলামিক ধ্যানধারণা ও মুল্যবোধকে বিশেষ করে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে৷ শুধুমাত্র বিবাহ ইচ্ছুক নারী পুরুষরাই এই পোর্টালে যোগ দিতে পারেন৷ কোলনের ৩৪ বছর বয়স্ক জেমিলে উজার তাঁদেরই একজন৷ সুদর্শনা এই নারী একজল ধার্মিক মুসলিম৷ প্রথম বিয়েটা ভেঙে গেছে তাঁর৷ আর একবার ভাগ্য পরীক্ষা করে দেখতে চান তিনি৷ জেমিলে জানান, ‘‘আমার প্রাক্তন স্বামী মুসলমান হলেও তা ছিল শুধু মাত্র কাগজে কলমে৷ ধর্ম কর্ম নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামাতেন না তিনি৷ এজন্য এখন আমি এমন একজন জীবনসঙ্গী পেতে চাই, যিনি সচেতনভাবেই নিজ ধর্ম কর্ম পালন করেন৷''

Hadi Heidari Liebe 6
ছবি: Hadi Heidari

এই পোর্টালে যোগদানকারীরা নিজের ধর্মচর্চা সম্পর্কেও তুলে ধরতে পারেন৷ যেমন কেউ নামাজ রোজা নিয়মিত পালন করেন কিনা, ধর্মান্তরিত মুসলিম কিনা, মাথায় হিজাব পরেন কিনা বা এসম্পর্কে মনোভাব কী - এসব লিখে জানাতে পারেন পোর্টালে৷ ইচ্ছে করলে কেউ তাঁর ছবি নির্দিষ্ট কাউকে দেখানোর জন্য পাঠাতেও পারেন৷ মূলত মুসলিমদের জন্য হলেও, কখনও সখনও খ্রিষ্টানরাও যোগ দেন এই পোর্টালে৷ এ প্রসঙ্গে জেমিলে উজার বলেন, এই পোর্টালে একজন খ্রিষ্টান যোগাযোগ করেছিলেন আমার সঙ্গে৷ তাঁকে পছন্দ হয়েছিল আমার৷ কিছুদিন চ্যাটও করেছিলাম আমরা৷ কিন্তু তিনি ধর্মান্তরিত হননি৷ এ ব্যাপারে কিছুটা সময় চেয়েছিলেন৷ আমি বলেছিলাম, মুসলমান হলেই কেবল আমি মত দিতে পারি৷ অন্য সব দিক দিয়েই আমাদের মিলেছিল, কিন্তু ধর্মই ছিল একমাত্র বাধা৷ তাই বিষয়টি আর গড়ায়নি৷''

কম আকর্ষণীয় হলেও খ্রিষ্টানের চেয়ে মুসলমান পাত্রের পক্ষেই মত দেবেন জেমিলে৷ আর নাস্তিকের তো প্রশ্নই ওঠেনা জানান কোলনবাসী এই নারী৷ বন্ধুবান্ধবেরা অবশ্য তাঁর এই ধরনের চিন্তাধারায় বিস্মিত হয়৷ তাঁদের মতে আসল কথা তো মানুষটি, তাঁর ধর্মবিশ্বাস নয়৷ এই কথা শুনতে হয় তাঁকে সবসময়৷মুসলিম পোর্টালের পরিচালকরা অবশ্য এক্ষেত্রে খোলামেলা৷ তাঁদের একজন কাদির ইউচেল৷ তিনি বলেন, ‘‘আমাদের এখানে সবাই স্বাগত৷ অর্থাৎ কোনো ধর্মের মধ্যে পার্থক্য করিনা আমরা৷ অবশ্য এটা ঠিক যে, আমাদের এখানে বিশেষ করে মুসলমানরাই যোগ দেন৷ কিন্তু আমরা নিজেরা কোন বিভেদ সৃষ্টি করিনা৷''

Berlin Liebe Aus dem Palast betrachtet
ছবি: picture-alliance/dpa

ইন্টারনেট পোর্টাল ‘মুসলিম হেল্প'কে এখন সারা ইউরোপে মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য সবচেয়ে বড় পাত্র-পাত্রী খোঁজার প্ল্যাটফর্ম বলে মনে করা হয়৷ ৩১ বছর বয়স্ক কাদির ইউচেল এবং স্যুনেইট টির্গিল হঠাৎ করেই এই পোর্টাল গড়ে তোলায় এসে পড়েন৷ কয়েক বছর আগে ব্রিটেনের এক বন্ধু হন্যে হয়ে মুসলমান পাত্রীর খোঁজ করছিলেন৷ অবশেষে ব্যর্থ হয়ে কম্পিউটার সাইন্সের ছাত্র সফটওয়্যারে দক্ষ এই দুই বন্ধুকে একটি ওয়েব সাইট গড়ে তোলার অনুরোধ জানান তিনি, যাতে বিয়ের জন্য মুসলিম পাত্র পাত্রীর সন্ধান পাওয়া যাবে৷ প্রথম দিকে নিখরচায় একটি ওয়েব সাইট তৈরি করেন ইউচেল ও টির্গিল৷ তারপর কিছুটা ব্যবসায়িক বুদ্ধিও মাথায় খেলে যায় তাঁদের৷ এছাড়া, এই সাইটে আসতে থাকা আজে বাজে কিছু মন্তব্য রোধ করার জন্য মাসিক একটা সদস্য ফিও ধার্য করেন এই দুই তরুণ৷ পুরুষদের জন্য ১৯ ইউরো ৯০ সেন্ট৷ আর মেয়েদের জন্য ১০ ইউরো৷ দেখে শুনেই বক্তব্যগুলি প্রকাশ করেন তাঁরা৷ বর্ণ বৈষম্যমূলক বা কোনো ধরনের বেআইনি কথাবার্তা ঢুকতে পারেনা তাঁদের ওয়েব সাইটে৷

সুনেইট টের্গিল বলেন, ‘‘কেউ কেউ আবার দ্বিতীয় স্ত্রী খোঁজেন৷ কিন্তু আমাদের প্ল্যাটফর্মে তাঁদের জায়গা দেইনা৷ যাঁরা অবিবাহিত, বিপত্নীক বা যাঁদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গেছে, শুধুমাত্র তাঁরাই স্থান পান আমাদের ওয়েব সাইটে৷''

মুসলমানদের মধ্যে যাঁরা মুক্তমনা তাঁদের যেমন টানে এই ওয়েব সাইট, তেমনি গোড়া ধার্মিক মুসলিমদের মনেও আগ্রহ জাগায় এটি৷ বিশেষ করে যাঁরা কেবল পর্দানশিন ধার্মিক পাত্রীই খোঁজেন৷ জানান কাদির ইউচেল৷ এই ওয়েব সাইটের সাফল্য বোঝা যায় বিয়ের হার লক্ষ্য করলে, যা এখন ১৭ শতাংশ৷

প্রতিবেদন: রায়হানা বেগম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়

সম্পর্কিত বিষয়

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

টাইব্রেকারে জাপানের তিনটি শট ঠেকিয়ে ক্রোয়েশিয়ার জয়ের নায়ক ডমিনিক লিভাকোভিচ

টাইব্রেকারে জাপানকে হারিয়ে শেষ আটে ক্রোয়েশিয়া

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান