মুশতাকের মৃত্যু: প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে ‘পুলিশ হত্যাচেষ্টার’ মামলা | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 27.02.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

মুশতাকের মৃত্যু: প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে ‘পুলিশ হত্যাচেষ্টার’ মামলা

লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে শাহবাগে আন্দোলনে অংশ নেয়া আটক সাতজনের বিরুদ্ধে পুলিশ সদস্যদের ‘হত্যাচেষ্টার’ অভিযোগে আনা হয়েছে৷ শুক্রবার মধ্যরাতে শাহবাগ থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ৷

এরমধ্যে গতকাল শাহবাগ থেকে আটক সাতজনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে৷ ডয়চে ভেলের বাংলাদেশ কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম শাহবাগ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মাহবুব আলমকে উদ্ধৃত করে এই তথ্য জানিয়েছে৷ সংবাদমাধ্যমটিকে তিনি বলেন, ‘‘গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে পুলিশকে হত্যার চেষ্টা, রক্তাক্ত জখম করা এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে৷ এই ঘটনায় আর কারা জড়িত, সে বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে৷’’ এজাহারে বলা হয়েছে, ঘটনার সময় সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়৷

বুধবার কাশিমপুর কারাগারে বন্দি অবস্থায় মারা যান লেখক মুশতাক আহমেদ৷ ছয় মাসের বেশি সময় আগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হন তিনি৷ এরপর কয়েক দফা তার জামিন আবেদন নাকচ হয়েছে আদালতে৷ মুশতাকের মৃত্যুর প্রতিবাদে শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বিক্ষোভ করেছে বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা৷

Bangladesch Protest nach Tot von Mushtaq Ahmed

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতেও পুলিশ সদস্যদের আন্দোলনকারীদেরকে বেধড়ক পেটাতে দেখা যায়৷

সন্ধ্যায় বামপন্থি ছাত্রসংগঠনগুলোর মিছিলে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে৷ এ সময় পুলিশের লাঠিপেটায় ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা৷ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতেও পুলিশ সদস্যদের আন্দোলনকারীদেরকে বেধড়ক পেটাতে দেখা যায়৷ বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে তাদের প্রতিবেদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মশাল মিছিলে অংশ নেয়াদের উপর পুলিশকে লাঠপেটা ও টিয়ার গ্যাস ছুঁড়তে দেখেছেন৷

তবে পুলিশ উল্টো দাবি করেছে, আন্দোলনকারীদের ‘হামলায়’ তাদের ১৫ সদস্য আহত হয়েছেন৷

মামলার বরাত দিয়ে শাহবাগ থানার পরিদর্শক মাহবুব বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘‘অনুমতি ছাড়া এক থেকে দেড়শ জন মশাল নিয়ে বিক্ষোভ করার সময় তাদের আশপাশের হাসপাতালগুলোর কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়৷ কিন্তু তারা না শুনে পুলিশের উপর উল্টো হামলা চালায়৷’’ তিনি দাবি করেন মশালের আগুনে একজন কনস্টেবলের শরীরে আগুন ধরে যায় এবং পুলিশের অন্তত ১৫ জন সদস্য আহত হয়েছেন৷

Bangladesch Protest nach Tot von Mushtaq Ahmed

মুশতাকের মৃত্যুর প্রতিবাদে শনিবারও শহাবাগ এলাকায় মিছিল করেন আন্দোলনকারীরা৷

এদিকে মুশতাকের মৃত্যুর প্রতিবাদের শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে৷ আন্দোলনকারীরা মুশতাকের মৃত্যুকে ‘জেল হত্যা’ হিসেবে অভিহিত করেন৷ বার্তা সংস্থা এএফপিকে প্রতিবাদে অংশ নেয়া মনীষা চক্রবর্তী বলেন, ‘‘মুশতাকের মৃত্যু স্বাভাবিক নয়৷ এটাকে আমরা হত্যাকাণ্ডই বলব৷’’

এদিকে, মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র, ক্যানাডা, জার্মানি, ফ্রান্সসহ উন্নত দেশগুলোর জোট-ওইসিডি এর ১৩ জন রাষ্ট্রদূত৷ তারা এই ঘটনার দ্রুত, স্বচ্ছ ও স্বাধীন তদন্তের আহবান জানিয়েছেন৷ নিউইয়র্ক ভিত্তিক কমিটি টু প্রটেস্ট জার্নালিস্ট-সিপিজে এবং পেন আমেরিকাও একই আহবান জানিয়েছে৷

এফএস/এআই (এএফপি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়