মুবারক, বেন আলি হবেন না গাদ্দাফি | বিশ্ব | DW | 07.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মুবারক, বেন আলি হবেন না গাদ্দাফি

টিউনিশিয়ার বেন আলি আর মিশরের মুবারক যেভাবে সরে দাঁড়িয়েছেন সেভাবে যাবেন না গাদ্দাফি৷ সেটা এখন মোটামুটি পরিষ্কার৷ সেজন্য বিদ্রোহীদের নিযন্ত্রণে থাকা শহরগুলো পুনরায় দখলে নিতে চাইছে গাদ্দাফি বাহিনী৷

default

গাদ্দাফি বাহিনীর হামলা

সর্বশেষ পরিস্থিতি

পুবের অন্যতম বড় শহর মিস্রাতা এখনো বিদ্রোহীদের দখলে৷ যদিও রবিবার তিনদিক দিয়ে হামলা চালিয়েছিল গাদ্দাফি বাহিনী৷ ট্যাঙ্ক, হেলিকপ্টার ও ভারি অস্ত্র নিয়ে হামলা করে তারা৷ কিন্তু বিদ্রোহীরা ছিল অপ্রতিরোধ্য৷ তাই গাদ্দাফি বাহিনী মিস্রাতা দখল নিতে সফল হয় নি৷ হামলা হয়েছে পশ্চিমের শহর জাউইয়াতেও৷ যেটি রাজধানী ত্রিপোলি থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত৷ এর আগের দিনও দুবার হামলা হয়েছিল এই শহরের উপর৷ কিন্তু শেষ খবর বলছে, জাউইয়া শহরের নিয়ন্ত্রণ এখনো বিদ্রোহীদের কাছে৷ তবে অপেক্ষাকৃত ছোট শহর বিন জাওয়াদ বিদ্রোহীদের হাত ছাড়া হয়ে গেছে বলে জানা গেছে৷ ঐ শহর থেকে ফিরে আসা এক বিদ্রোহীর কাছে শহরের পরিস্থিতি জানতে চেয়েছিল বার্তা সংস্থা রয়টার্স৷ কিন্তু ঐ বিদ্রোহী এতটাই ভীত ছিলেন যে তিনি শুধু ‘মৃত্যু' এই কথাটি বলতে পেরেছেন৷ এছাড়া রাস লানুফেও বেশ বড়সড় হামলা করেছে গাদ্দাফি বাহিনী৷

জাতিসংঘের নতুন উদ্যোগ

রাজধানী ত্রিপোলির মানবাধিকার পরিস্থিতি দেখতে সেখানে একটি প্রতিনিধিদল পাঠানোর দাবি জানিয়েছিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুন৷ সেটা মানা হয়েছে বলে জানা গেছে৷ তবে ত্রিপোলির কোন্ কোন্ অংশে এই দলটি যেতে পারবে সেটা অবশ্য এখনো জানা যায় নি৷ এছাড়া গাদ্দাফি প্রশাসনের সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে একজন বিশেষ দূত'ও নিয়োগ করেছেন বান কি-মুন৷ এই দূত হলেন জর্ডানের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল-খতিব৷ নতুন দায়িত্ব নেওয়ার আগে এই সপ্তাহেই তিনি নিউ ইয়র্ক যাবেন বলে জানা গেছে৷

জার্মানি

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে বলেছেন, লিবিয়ার ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত৷ এদিকে মার্কিন অর্থমন্ত্রী টিমোথি গাইথনার আগামীকাল জার্মানি সফরে আসছেন৷ সেসময় নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলোচনা হবার কথা রয়েছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন