মুফতি আমিনীর অপহৃত পুত্র মুক্তি পেলেন | বিশ্ব | DW | 22.04.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মুফতি আমিনীর অপহৃত পুত্র মুক্তি পেলেন

‘অপহরণের’ ১২ দিন পর মুফতি ফজলুল হক আমিনীর ছেলে আবুল হাসনাত ‘মুক্তি’ পেয়েছেন৷ তবে হাসনাত বলতে পারেননি কারা তাকে অপহরণ করেছিল৷ তাকে অপহরণকারীরা নির্যাতনও করেনি৷

default

মুফতি বলছেন প্রধানমন্ত্রীই দায়ী

আমিনীর দাবী সব কিছু হয়েছে শেখ হাসিনার নির্দেশে৷ আমিনী ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের চেয়ারম্যান এবং নারী উন্নয়ন নীতিমালার বিরোধিতাকারী৷

মুফতি ফজলুল হক আমিনীর ছেলে আবুল হাসনাত নিখোঁজ হন গত ১০ই এপ্রিল ঢাকার টিপু সুলতান রোড এলাকা থেকে৷ চোখ বেঁধে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে তার পরিবারের অভিযোগ৷ আজ ভোরে তাকে আবার ঢাকার আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা ফেলে রেখে যায়৷ দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে আমিনী পুত্র আবুল হাসনাত জানান, তাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আটক রাখা হয়েছিল৷ অপহরণকারীরা তাকে নির্যাতন না করলেও হাতকড়া পরিয়ে রেখেছিল৷ তার বাবা যা'তে কয়েকমাসের জন্য নীরব থাকেন, সেজন্য বার বার হাসনাতের উপর চাপ সৃষ্টি করা হয়েছিল৷

কারা অপহরণ করেছিল হাসনাত তা বলতে না পারলেও তার বাবা আমিনীর দাবী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তাঁর পুত্রকে অপহরণ করা হয় এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়৷ আমিনীর দাবী তিনি কোরান রক্ষায় যে আন্দোলন শুরু করছেন তা বন্ধ করতেই তার ছেলেকে অপহরণ করা হয়৷ তবে তিনি বলেন এতে আন্দোলন তো বন্ধ হবে না'ই, বরং আরো বেগবান হবে৷

এদিকে ভোর ৪টায় ছেলেকে ফিরে পেলেও আমিনী পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি থানায় জানান হয় ৫ ঘন্টা পরে৷ কেন এত দেরী করা হল জানতে চাইলে হাসনাতের ভগ্নীপতি মাওলানা জুবায়ের বলেন পুলিশি ঝামেলা এড়াতে এমনটি করা হয়েছে৷

পুলিশ জানিয়েছে হাসনাতকে কারা অপহরণ করেছিল আর কারাই বা আবার আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে ফেলে রেখে গেছে পুরো বিষয়টি তারা তদন্ত করে দেখছেন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

বিজ্ঞাপন