মুক্তবাণিজ্যের পথে আফ্রিকা | বিশ্ব | DW | 08.07.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

মুক্তবাণিজ্যের পথে আফ্রিকা

চার বছরের চেষ্টায় আফ্রিকার দেশগুলো নিজেদের মধ্যে মুক্তবাণিজ্যে সম্মত হয়েছে৷ রোববার নাইজেরিয়ায় আফ্রিকান ইউনিয়নের সম্মেলনে মুক্তি বাণিজ্য বিষয়ক চুক্তিটি সই হয়৷

চুক্তিতে সই করেন নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি এবং বেনিনের রাষ্ট্রপতি প্র্যাট্রিস ট্যালন৷

চুক্তির আলোকে আগামী বছরের জুলাই থেকেই চালু হতে যাচ্ছে মুক্ত বাণিজ্য৷ তবে মহাদেশটির ৫৫টি রাষ্ট্রের মধ্যে একমাত্র ইরিত্রিয়া একটু বেঁকে আছে৷ এছাড়া অপর ৫৪টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানেরা এ বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছেছে৷

নিজেদের মধ্যে সম্পাদিত চুক্তির ক্ষণকে ‘ঐতিহাসিক মূহূর্ত' হিসেবে অভিহিত করেছেন আফ্রিকান ইউনিয়ন কমিশন চেয়ারম্যান মুসা ফাকি৷ এর মধ্য দিয়ে, মহাদেশের ১৩০ কোটি মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হবে বলে আশা করছেন তারা৷

৫৫টি দেশে মোট অর্থনীতির পরিমাণ তিন দশমিক ৪০ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার৷ তাই এই চুক্তি আফ্রিকার উন্নয়নে ‘নতুন যুগের সূচনা' হিসেবে মনে করেছেন নেতারা৷

জোটের চেয়ারম্যান ও মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ এল সিসি বলেই ফেলেছেন, গোটা বিশ্বের চোখ এখন আফ্রিকার দিকেই থাকবে৷ এই চুক্তির মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দরকষাকষিতে আফ্রিকার ব্যবসায়ীদের অবস্থান সুদৃঢ় হবে বলেও মনে করেন তিনি৷

চুক্তি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে সুফল পেতে কিছুটা বেগ পোহাতে হবে বলে ধারণা করছেন অর্থনীতি বিশ্লেষকরা৷ অনুন্নত সড়ক ও রেলযোগাযোগ, অভ্যন্তরীণ সংঘর্ষ এবং সীমান্তে কঠোর নজরদারিকে মুক্ত বাণিজ্যের জন্য বাধা হিসেবে দেখছেন তাঁরা৷

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বলছে, বেশিরভাগ পণ্যের শুল্ক প্রত্যাহারে সম্মত হয়েছে আফ্রিকার নেতারা৷ যার ফলে মধ্য মেয়াদে আঞ্চলিক বাণিজ্য ১৫ থেকে ২৫ ভাগ বেড়ে যাবে৷ অন্য প্রসঙ্গগুলোতে আফ্রিকান ইউনিয়নের নেতারা আন্তরিক থাকলে দীর্ঘমেয়াদে তা দ্বিগুন হওয়ার সম্ভাবনা দেখছে আইএমএফ৷

টিএম (ডিডাব্লিউ/এএফপি/রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন