মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলায় গাম্বিয়াকে ক্যানাডার সমর্থন | বিশ্ব | DW | 13.11.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

রোহিঙ্গা সংকট

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলায় গাম্বিয়াকে ক্যানাডার সমর্থন

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ার আন্তর্জাতিক আদালতে দায়ের করা মামলায় সমর্থন দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে কানাডা৷

রাখাইনের একটি পুড়িয়ে দেয়া গ্রাম

রাখাইনের একটি পুড়িয়ে দেয়া গ্রাম

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডকে উদ্ধৃত করে এ খবর জানিয়েছে দ্যা ক্যানাডিয়ান প্রেস৷

গত সোমবার মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানোর অভিযোগ এনে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত আদালতে মামলা দায়ের করে গাম্বিয়া

মুসলিম দেশগুলোর সংগঠন অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের পক্ষ থেকে মামলাটি দায়ের করা হয়৷

এক বিবৃতিতে ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেন ‘‘মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়ের করা আন্তর্জাতিক গণহত্যা কনভেনশন লঙ্ঘনের অভিযোগের বিষয়টিতে ক্যানাডার সমর্থন রয়েছে৷ এ বিষয়ে কিভাবে পূর্ণ সহায়তা সহায়তা প্রদান করা যায় সে পথ খুঁজছে ক্যানাডা৷’’

গাম্বিয়ার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তিনি আরো বলেন, বিষয়টি আইনি সমাধানের জন্য সমমনা দেশগুলোকে নিয়ে কাজ করবে ক্যানাডা৷ রোহিঙ্গা নির্যাতনের সাথে জড়িত অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনতে এবং মিয়ানমারে দীর্ঘ মেয়াদে শান্তি ও সম্প্রীতি ফিরিয়ে আনতে কাজ করবে ক্যানাডা, বলেন তিনি৷

মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যে বসবাসরত রোহিঙ্গারার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালে দেশ ছেড়েছিল৷ সেসময় প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়৷

ঘটনার তদন্তে ২০১৮ সালে একটি ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিশন গঠন করে জাতিসংঘ৷ এ কমিশন তাদের প্রতিবেদনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যার জোরালো প্রমান তুলে ধরে৷ সেসময় ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিশনের এ প্রতিবেদনকে সমর্থন জানায় ক্যানাডার হাউস অব কমন্স৷

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নির্যাতন ঠেকাতে কোন ভূমিকা রাখতে না পারার অভিযোগ এনে দেশটির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের নেত্রী অং সান সুচিকে দেয়া সম্মানজনক নাগরিকত্বও বাতিল করে দেশটি৷

আরআর/কেএম (দ্যা ক্যানাডিয়ান প্রেস, এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন