মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলার শুনানি শুরু | বিশ্ব | DW | 10.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

রোহিঙ্গা সংকট

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলার শুনানি শুরু

জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে)-তে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলার শুনানি শুরু হয়েছে৷ শুনানিতে উপস্থিত রয়েছেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি৷

নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে অবস্থিত জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে)-তে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলার শুনানি শুরু হয়েছে৷ এই শুনানি তিন দিন চলবে৷

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি শুনানিতে অংশ নিতে মঙ্গলবার সকালে পিস প্যালেসে এসে হাজির হন৷ এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা তাকে বিভিন্ন প্রশ্ন করলেও তার কোনো জবাব দেননি তিনি৷

নেদারল্যান্ডসের স্থানীয় সময় সকাল দশটা নাগাদ শুনানি শুরু হয়৷ প্রথমে বিচারকরা মামলার বিস্তারিত পড়ে শোনান৷ এরপর বাদী গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও আইনমন্ত্রী আবু বকর মারি তামবাদু-কে তার বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলেন৷ তিনি মিয়ানমারের গণহত্যার চিত্র তুলে ধরে রোহিঙ্গাদেরকে তাদের ভূমিতে সসম্মানে বসবাসের সুযোগ দেয়ার এবং তাদের শিশুদের ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করার জন্য আদালতের প্রতি আহবান জানান৷

উল্লেখ্য, ১৯৪৮ সালের গণহত্যা কনভেনশনের অধীনে আইসিজেতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গত নভেম্বরে মামলা করে গাম্বিয়া৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে এটি এই আদালতে দায়ের হওয়া তৃতীয় গণহত্যার মামলা৷

তিনদিনব্যাপী শুনানিতে সু চি রোহিঙ্গাদের উপর চালানো গণহত্যার অভিযোগের বিষয়ে তার সরকারের অবস্থান তুলে ধরবেন৷ দেশটির সরকার অবশ্য বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে৷

‘ওয়ার্ল্ড কোর্ট' হিসেবে পরিচিত ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস-এর ট্রাইব্যুনালের রায় বাস্তবায়নের কোনো ক্ষমতা তাদের হাতে নেই৷ তবে এই আদালত যে রায় দেবে সেটিই চূড়ান্ত৷        

এফএস/এসিবি (রয়টার্স, ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন