মিশরে আন্দোলন অব্যাহত, সরছেন না মুবারক | বিশ্ব | DW | 09.02.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মিশরে আন্দোলন অব্যাহত, সরছেন না মুবারক

মিশরের প্রেসিডেন্টের কোন উদ্যোগই থামাতে পারছে না বিক্ষোভকারীদের৷ বরং তাঁর পদত্যাগের দাবিতে, আবারো জমে উঠেছে আন্দোলন৷ এদিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিশরের জরুরী আইন প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে৷

default

তাহরির চত্বরে অবস্থান নিয়েছেন কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী

মিশরের সর্বশেষ অবস্থা

মিশরের প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারকের পদত্যাগের দাবিতে অনড় রয়েছে বিক্ষোভকারীরা৷ কায়রোর তাহরির চত্বরে মঙ্গলবার হাজার হাজার বিক্ষোভকারী জড়ো হয়৷ প্রতিবাদ সমাবেশ অব্যাহত রয়েছে আলেকজান্দ্রিয়াসহ অন্যান্য শহরেও৷ মুবারক সরকারের সংবিধান সংশোধনের কোন উদ্যোগই বিক্ষোভরতদের সন্তুষ্ট করতে পারছে না৷ বরং তাহরির চত্বরে অবস্থানরত সরকার বিরোধী আন্দোলনকারী আহমেদ এর মন্তব্য, আমরা তাদেরকে আর বিশ্বাস করি না৷ গত ১৫দিন ধরে চলা এই সরকার বিরোধী আন্দোলনে নিহতের নতুন সংখ্যা প্রকাশ করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ৷ সাতটি হাসপাতাল থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, নিহতের সংখ্যা ২৯৭৷ তবে, মিশর সরকার এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি৷

Flash-Galerie Proteste Ägypten

মুবারক বিরোধী আন্দোলনে অংশ নিয়েছে সব বয়সিরা

সরকারের অবস্থান

মিশরের সংবিধান সংস্কারে একাধিক কমিটি গঠন করেছে সেদেশের সরকার৷ ভাইস-প্রেসিডেন্ট ওমর সুলাইমান জানিয়েছেন, গণতান্ত্রিক সংস্কারের জন্য আলোচনায় আগ্রহী তাঁর সরকার৷ তবে, তাহরির চত্বর ঘিরে অব্যাহত প্রতিবাদ সমাবেশ দীর্ঘদিন চলতে দেওয়া যাবে না৷ বার্তা সংস্থা এপি সুলাইমানকে উদ্ধৃত করে জানায়, প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক শীঘ্রই পদত্যাগ করবেন না৷ সেপ্টেম্বরের নির্বাচন অবধি ক্ষমতায় থাকতে বদ্ধপরিকর হোসনি মুবারক৷

পশ্চিমা বিশ্বের মন্তব্য

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার মিশরের বিষয়ে খানিকটা কড়া সুরে কথা বলেছে৷ মিশরে ৩০ বছর ধরে চলা জরুরী অবস্থা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র৷ মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই বিষয়ে মিশরের ভাইস-প্রেসিডেন্টের সঙ্গে টেলিফোনে আলোচনা করেছেন৷ এসময় বাইডেন বলেন, সাংবাদিক এবং প্রতিবাদকারীদের নির্যাতন কিংবা গ্রেপ্তার থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বিরত থাকতে হবে৷ বলাবাহুল্য, মিশরে সরকার বিরোধী আন্দোলনের পর এই প্রথম এরকম সরাসরি মন্তব্য করলো যুক্তরাষ্ট্র৷

এদিকে, সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছিল, মুবারক সম্ভবত জার্মানিতে চিকিৎসার জন্য আসতে পারেন৷ জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে অবশ্য এখন পর্যন্ত এরকম কোন প্রস্তাব পাননি বলে জানিয়েছেন৷ জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুন আবারো যত দ্রুত সম্ভব মিশরে নিয়মতান্ত্রিক ক্ষমতার পালাবদল শুরুর আহ্বান জানিয়েছেন৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন