মিরপুর স্টেডিয়ামে নিরাপত্তার কড়াকড়ি | বিশ্ব | DW | 19.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মিরপুর স্টেডিয়ামে নিরাপত্তার কড়াকড়ি

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের আশপাশ এলাকাকে নোম্যান্স জোন ঘোষণা করছে পুলিশ৷ ক্রিকেটে বিজয়ের আনন্দে অথবা পরাজয়ের হতাশায় কোন উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করা যাবে না৷

default

বাংলাদেশের সমর্থকদের বুকভরা আশা

পুলিশ কমিশনার বলেছেন, বাড়াবাড়ি করলেই জেল হাজতে পাঠানো হবে৷

ক্রিকেটে জয়ী হলে বাঁধভাঙ্গা আনন্দ আর হারলে রুদ্র মূর্তি ঢাকার দশর্কদের৷ এই আচরণ নিয়ে শঙ্কিত খোদ পুলিশ প্রশাসন৷ বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে হারার পর অপ্রীতিকর ঘটনা আর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয়ের পর আনন্দে দশর্কদের গাড়ি ভাঙচুর কোনটিকেই সহজভাবে নেয়নি পুলিশ৷ আর তাই আজকে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের আগে সতর্ক পুলিশ৷ এই ম্যাচের উত্তেজনাও বেশি৷ কারণ এই ম্যাচে জেতা বা হারার উপর নির্ভর করছে বাংলাদেশের পরবর্তী বিশ্বকাপ মিশন৷ তাই ঢাকার দর্শকদের আবেগও অনেক বেশি এই ম্যাচ নিয়ে৷ কিন্তু বেরসিক পুলিশ আবেগকে পাত্তা দেবে না৷ খেলার আগে পরে মিরপুর ষ্টেডিয়ামের আশপাশ এলাকাকে নোম্যান্স জোন ঘোষণা করা হয়েছে৷ যারা টিকিট কেটেছেন তারাই যেতে পারবেন৷ আর খেলা দেখার পর দ্রুত বের হয়ে যেতে হবে৷ কেউ ষ্টেডিয়ামের আশপাশে ভীড় করতে পারবেন না৷ করা যাবে না কোনো জটলা বা মিছিল৷ যা জানালেন পুলিশ কমিশনার বেনজির আহমেদ৷

Cricket Weltmeisterschaft 2011 Abdur Razzak NO FLASH

টাইগারদের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ

শুধু ষ্টেডিয়ামের আশপাশ নয়, পুরো ঢাকা শহরে থাকবে পুলিশের সতর্ক নজরদারি৷ উল্লাস অথবা হতাশার প্রকাশে বাড়াবাড়ি করলেই পুলিশি আটকের মুখোমুখি হতে হবে৷ পুলিশ কমিশনার জানান, কোন উচ্ছৃঙ্খল আচরণ সহ্য করা হবে না৷ দেশের ভাবমূর্তি রক্ষায় তারা সব ব্যবস্থা নেবেন৷

এদিকে বাংলাদেশ দলের ক্যাপ্টেন সাকিব আল হাসান আজ দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার আশা করছেন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা
সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়