‘‘মায়ের দুধ’’ দেবার ক্ষমতা থাকবে ক্লোন করা গরুর | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 10.06.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞান পরিবেশ

‘‘মায়ের দুধ’’ দেবার ক্ষমতা থাকবে ক্লোন করা গরুর

জিন প্রযুক্তির যুগে অনেক স্বপ্ন - অনেকে বলবেন দুঃস্বপ্ন - সফল হয়৷ যেমন ধরা যাক মায়ের দুধ, শিশুর পক্ষে যার চেয়ে বেশি পুষ্টিকর আর কিছু নেই৷ সেটা যদি কোনো গরুর কাছ থেকে পাওয়া যেতো?

default

ধরুন কৃত্রিমভাবে সৃষ্ট ভ্রুণ থেকে বিকল্প মায়ের গর্ভে যদি শিশু জন্ম নিতে পারে, তাহলে তাকে বিকল্প ‘‘গো-মাতার'' দুধ খাওয়াতেই বা আপত্তি কিসের৷ আর্জেন্টিনার বিজ্ঞানীরা একটি ক্লেন করা বাছুরের মধ্যে কিছু পরিবর্তিত জিন ঢুকিয়ে সেই অসাধ্যসাধনই করবার চেষ্টা করেছেন৷

মেয়ে বাছুরটির নাম হল রোসিটা আইএসএ৷ তার মধ্যে যে দুটি মানুষের জিন ঢোকানো হয়েছে, তাদের কাজ হল এমন দুটি প্রোটিন তৈরী করা, যেগুলো মানুষের দুধেও পাওয়া যায়৷ একটির নাম ল্যাক্টোফেরিন, অন্যটির লাইসোজাইম৷ এদের কল্যাণে মানবশিশু ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের বিরুদ্ধে উন্নততর সুরক্ষা পায় - অন্তত গোদুগ্ধে যতোটা পাওয়া যায়, তার চেয়ে বেশি৷

রোসিটার জন্ম হয়েছে গত ৬ই এপ্রিল৷ কাজেই তার নিজের মা হবার মতো বড় হতে এবং নিজের বাছুরের জন্য দুধ দিতে আরো দু'বছর লাগবে৷ বুয়েনস এয়ারেসের কাছে আর্জেন্টিনার জাতীয় কৃষিব্যবসায় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানীদের অবশ্য ধৈর্য্যের কোনো অভাব নেই৷ তারা জানেন, শিশুর অপুষ্টি বিশ্বে কতোবড় একটা অভিশাপ৷

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন