মাস্টারকার্ডকে ৫৭০ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা | বিশ্ব | DW | 23.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

মাস্টারকার্ডকে ৫৭০ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা

ক্রেডিট কার্ড সেবাদানকারী  প্রতিষ্ঠান মাস্টারকার্ডকে গুণতে হচ্ছে বড় অঙ্কের জরিমানা৷ এই প্রতিষ্ঠানকে ৫৭০ মিলিয়ন, অর্থাৎ ৫৭ কোটি ইউরো জরিমানা করেছে ইউরোপী‌‌য় ইউনিয়ন৷ 

পণ্য ক্রয়ে ক্রেতা ও খুচরা বিক্রেতাদের (রিটেইলার) স্বল্পতর পেমেন্ট ফি'র সুবিধা আটকে রাখার পুরোনো নীতির জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠানটিকে এ জরিমানা করেছে৷ 

ইউরোপের বাজারে ২০১৫ সালের আগ পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির পেমেন্ট ফি পলিসির কারণে কার্ড ব্যবহারে ক্রেতা, বিক্রেতাদের প্রয়োজনের তুলনায় চড়া ফি দিতে হয়েছে৷

ইউরোপিয়ান কমিশন বলেছে, মাস্টারকার্ডের কার্যক্রমে ইউরোপ ব্লকের ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে৷ ২০১৫ সালের আগ পর্যন্ত মাস্টারকার্ডের নিয়ম অনুযায়ী, খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলো সংশ্লিষ্ট দেশের ব্যাংক ফি'র হারে পেমেন্ট দিতে বাধ্য হয়েছে৷ স্বল্পতর হারের ব্যাংক ফি আছে, ইউরোপের এমন দেশগুলোতে লেনদেনের ক্ষেত্রেও সেখানকার হারের বদলে নিজ দেশে বিদ্যমান ব্যাংক রেট দিতে হয়েছে৷ 

ইইউ-র প্রতিযোগিতা বিষয়ক কমিশনার মারগ্রেথ ভেস্তাগার বলেন, "ইইউ সদস্যরাষ্ট্রগুলোর ব্যাংকগুলোর দেয়া স্বল্প রেটে কেনাকাটা করতে ক্রেতাদের  নিরুৎসাহিত করায় মাস্টারকার্ডের নীতি কৃত্তিমভাবে কার্ড পেমেন্টের খরচ বাড়িয়ে দিয়েছে৷ এতে ইউ'র ভোক্তা আর বিক্রেতারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন৷”

একজন ক্রেতা যখন একটি দোকানে  ক্রেডিট কার্ড দিয়ে পেমেন্ট করেন, তখন ওই দোকানের ব্যাংক কার্ডহোল্ডারের ব্যাংকে একটি ফি প্রদান করেন৷ প্রতিষ্ঠান তখন তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে তাদের ওই দোকানের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ফি পাঠিয়ে দেয়, যা শেষমেশ ক্রেতার খরচ বাড়িয়ে দেয়৷

২০১৫ সালের আগ পর্যন্ত এই লেনদেন ফি (ইন্টারচেঞ্জ ফি) ইউরোপজুড়ে স্থানভেদে নানারকম ছিল৷ কিন্তু সেই সময় মাস্টারকার্ডের যে নিয়ম বহাল ছিল, সে মোতাবেক যে ব্যাংক কার্ড পেমেন্ট গ্রহণ করছে সেই ব্যাংকের উৎস দেশের বিদ্যমান হার ফি-তে প্রযোজ্য হতো৷ 

ইইউ কমিশনার বলেন, "ফলে ভোক্তা ও বিক্রেতাদের জন্য পণ্যের মূল্য বেড়ে যেতো৷ ব্যহত হতো ইউরোপের বাজারে আন্ত সীমান্ত প্রতিযোগিতা৷ আর তা অভিন্ন বাজারে কৃত্রিমভাবে শ্রেণীকরণ তৈরি করে৷''

কমিশন জরিমানার সিদ্ধান্ত ব্যখ্যা করে বলেছে, ‘‘কমিশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, মাস্টারকার্ডের নিয়মের ফলে বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলো স্বল্প ফি থেকে মুনাফা করতে পারেনি৷ এটি ইইউ ব্লকের দেশগুলোর বাজারে প্রতিযোগিতাকে সীমিত করেছে৷”

কমিশন এ-ও উল্লেখ করেছে যে, ইন্টারচেঞ্জ ফি রেগুলেশন বা লেনদেন ফি নিয়ন্ত্রন চালু হওয়ার পর মাস্টারকার্ড তাদের নিয়ম পরিবর্তন করলে চর্চাটি বন্ধ হয়৷

জরিমানার অঙ্ক আরো বেশি হওয়ার কথা থাকলেও মাস্টারকার্ড এর সহযোগিতাপূর্ণ আচরণের কারণে জরিমানা ১০ শতাংশ লাঘব করেছে ব্রাসেলস৷

এফএ/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন