মার্কিন কূটনীতিকদের বহিষ্কার রাশিয়ার | বিশ্ব | DW | 24.03.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

রাশিয়া

মার্কিন কূটনীতিকদের বহিষ্কার রাশিয়ার

অ্যামেরিকার বেশ কিছু কূটনীতিককে বহিষ্কার করলো রাশিয়া। পোল্যান্ড রাশিয়ার ৪৫ জন কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে।

কূটনৈতিক লড়াইয়েও কড়া মনোভাব দেখাচ্ছেন পুটিন।

কূটনৈতিক লড়াইয়েও কড়া মনোভাব দেখাচ্ছেন পুটিন।

শুরু হয়ে গেল কূটনৈতিক যুদ্ধ। অ্যামেরিকা সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের অফিস থেকে ১২ জন রাশিয়ার প্রতিনিধিকে বহিষ্কার করেছে। তারপরেই বুধবার রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, তারা মার্কিন দূতাবাসকে একটা তালিকা ধরিয়ে দিয়েছে। তাতে কাদের পার্সোনা নন গ্রাটা বলে ঘোষণা করা হয়েছে, সেকথা জানিয়ে দেয়া হয়েছে। এর অর্থ, তালিকায় থাকা কূটনীতিকদের অবিলম্বে রাশিয়া ছাড়তে হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অ্যামেরিকাকে দৃঢ়ভাবে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে, তারা কোনো ব্যবস্থা নিলে, তার পাল্টা ব্যবস্থাও নেয়া হবে।

পোল্যান্ডের সিদ্ধান্ত

পোল্যান্ড  রাশিয়ার ৪৫ জন কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে। তাদের দাবি, রাশিয়ার ওই কূটনীতিকরা ইইউ দেশগুলিতে চরবৃত্তি করছিল। পোল্যান্ডের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাশিয়ার স্পেশ্যাল সার্ভিস নেটওয়ার্ক পুরোপুরি ভেঙে দেয়া হচ্ছে। একজনকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পোল্যান্ড ছেড়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে। বাকিরা পোল্যান্ড ছাড়ার জন্য পাঁচদিন সময় পাবেন।

মস্কো ইউক্রেনে হামলা করার পর থেকে পোল্যান্ড ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পর্ক খুবই খারাপ। পোল্যান্ড জানিয়েছে, রাশিয়া তাদের প্রতিবেশী দেশ। ফলে তাদের ইউরোপের ম্যাপ থেকে মুছে ফেলা যাবে না। তবে তারা পোল্যান্ডের বন্ধু দেশ নয়। তারা পোল্যান্ড-বিরোধী কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

যে ৪৫ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে, তাদের অর্ধেকের বেশি দূতাবাসে কাজ করতেন।

রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া

রাশিয়া জানিয়েছে, পোল্যান্ডের অভিযোগ ভিত্তিহীন। তবে রাশিয়া বলেছে, পোল্যন্ডের সঙ্গে তাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক বজায় আছে। দূতাবাস আছে, রাষ্ট্রদূতও আছেন।

পোল্যান্ডে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেছেন, রাশিয়াও এর পাল্টা ব্যবস্থা নিতে পারে। তবে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি।

এর আগে বুলগেরিয়াও রাশিয়ার কূটনীতিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিল।

জিএইচ/এসজি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)