মার্কিন কূটনীতিকদের জন্য আইস বাকেট নিষিদ্ধ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 23.08.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সমাজ সংস্কৃতি

মার্কিন কূটনীতিকদের জন্য আইস বাকেট নিষিদ্ধ

‘এএলএস আইস বাকেট চ্যালেঞ্জ' অ্যামেরিকা ও ইউরোপ সহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে৷ এক কঠিন স্নায়ুরোগের গবেষণায় অর্থ সংগ্রহের এই মহৎ কাজের উপর ‘নৈতিক কারণে' নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়৷

এক বালতি কনকনে ঠান্ডা বরফের টুকরো৷ স্বেচ্ছায় তা নিজের গায়ে ঢালতে দেওয়ার মতো পাগলামি কেউ করে? করে বৈকি৷ কোটিপতি থেকে শুরু করে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট এমন দুঃসাহসিক কাণ্ড করছেন৷ উদ্দেশ্য অত্যন্ত মহৎ৷ কারণ এই ‘স্টান্ট' থেকে যে অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে, তা একটি জনহিতকর কাজে ব্যয় করা হচ্ছে৷ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ‘এএলএস আইস বাকেট চ্যালেঞ্জ' ছড়িয়ে পড়ছে দিকে দিকে৷

রোগটির নাম অ্যাময়িওট্রফিক ল্যাটেরাল সক্লেরোসিস বা এএলএস, লু গেয়ারিগ নামেও যেই ব্যাধি পরিচিত৷ কঠিন এই স্নায়ু রোগ হলে রোগীর শরীরের অনেক পেশির স্বাভাবিক ক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ এই রোগের মোকাবিলা করতে প্রয়োজন আরও গবেষণা৷ তার জন্য অর্থ সংগ্রহ করতেই চলছে এই ‘আইস বাকেট চ্যালেঞ্জ'৷ সবাইকেই যে বরফ-বৃষ্টি সহ্য করতে হবে, তা নয়৷ এর বদলে ১০০ ডলার দান করলেও চলবে৷ যারা বরফের অভিঘাত সহ্য করছেন, তাঁরা সেই ছবি পোস্ট করে অন্যদের কাছেও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছেন৷ মাইক্রোসফট কোম্পানির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস-এর এমন ছবি প্রকাশিত হবার পর এই বিষয়টিকে ঘিরে আগ্রহ আরও বেড়ে গেছে৷ প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশ-ও বরফের অভিঘাত সহ্য করে নিজের ছবি তুলিয়েছেন৷ বর্তমান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা অবশ্য এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেননি৷ এর বদলে তিনি অর্থ দানের পথ বেছে নিয়েছেন৷

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখছে না৷ তাই সব মার্কিন কূটনীতিকের উপর ‘বালতি নিষেধাজ্ঞা' চাপানো হয়েছে৷ মহৎ কাজের জন্য অর্থ সংগ্রহের বিষয়ে সরাসরি আপত্তির কথা বলছে না পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়৷ ফেডারেল প্রশাসনের একটি নির্দেশিকার উল্লেখ করে বলা হয়েছে, যে রাষ্ট্রদূত সহ উচ্চপদস্থ কূটনীতিকরা নিজেদের পদের মর্যাদা ভেঙে ‘প্রাইভেট গেন' বা ব্যক্তিগত লাভের জন্য কোনো কাজ করতে পারেন না – তা সে কাজ যতই মহৎ হোক না কেন৷

এদিকে ‘আইস বাকেট চ্যালেঞ্জ' কতটা নিরাপদ, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে৷ বৃহস্পতিবার অ্যামেরিকার কেন্টাকি রাজ্যের এক বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে বরফ ঢালার কাজে সাহায্য করছিলেন কয়েকজন দমকল কর্মী৷ তাঁদের মধ্যে চারজন আহত হয়েছেন, দু'জনের অবস্থা গুরুতর৷ দুর্ঘটনাটি সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিস্তারিত না জানালেও বেসরকারি সূত্র থেকে জানা গেছে, বরফের আধারটি বিদ্যুতের তারের সংস্পর্শে চলে আসে৷

এসবি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন