1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
Ukraine | Krieg | Evakuierung aus Mariupol
ছবি: Alexander Ermochenko/REUTERS

মারিউপলের স্টিল প্লান্ট থেকে বেরিয়ে আসছেন মানুষ

১ মে ২০২২

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মাঝে মারিউপলে একটি ইস্পাত কারখানায় অবরুদ্ধ ইউক্রেনীয়দের একটি অংশ বেরিয়ে আসতে পেরেছেন৷ মস্কো বলছে, দুপুর পর্যন্ত প্রায় অর্ধশত বেসামরিক ইউক্রেনীয় আজোভস্টাল ইস্পাত কারখানা থেকে বেরিয়ে এসেছেন৷

https://p.dw.com/p/4AgIC

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় টেলিগ্রামে দেয়া বিবৃতিতে বলেছে, ‘‘যুদ্ধবিরতি ও মানবিক করিডোর বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ৩০ এপ্রিল বেসামরিক জনতার দুটি দল আজোভস্টাল ইস্পাত কারখানা সংলগ্ন আবাসিক ভবনগুলো থেকে চলে গেছেন৷''

সেখানে আরো বলা হয়, ‘‘দুপুর নাগাদ ২৫ জন স্থানীয় এলাকা ছেড়েছেন৷ সন্ধ্যা নাগাদ ২১ জনের আরেকটি দল প্রস্থান করেছে এবং তাদের বেজিয়েমেনেতে নেয়া হয়৷'' বেজিয়েমেনে মারিউপোল ও রুশ সীমান্তের মাঝামাঝি একটি গ্রাম৷ তবে প্রথম দলটিকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে তা বলেনি টেলিগ্রামের বিবৃতি৷

এদেরকে থাকার জায়গা, খাবার ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরবরাহ করা হয়েছে বলে রুশ কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে৷

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, গাড়ি ও বাসের একটি কনভয় প্রায় অন্ধকার পথ পাড়ি দিচ্ছে৷ গাড়িগুলোতে বড় অক্ষরের ‘জেড' লেখা৷ রুশ সেনারা যুদ্ধের সময় এই সংকেত ব্যবহার করেন৷

শনিবার আজোভস্টাল এলাকায় পাহারারত ইউক্রেনীয় সেনারা জানান, শিশুসহ ২০জন ইউক্রেনীয়কে জাপোরিঝঝিয়া শহরে সরিয়ে নেয়া হয়েছে৷ মারিউপলে শুধু এই ইস্পাত কারখানাটিই রুশ সেনাদের দখলে নেই৷ এই কারখানায় দুই হাজার ইউক্রেনীয় সেনা রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

এদিকে, রোববার রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, ওডেসা শহরের কাছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেয়া অস্ত্র ও যুদ্ধ সরঞ্জাম রাখার গুদাম ধ্বংস করে দিয়েছে তারা৷ এর জন্য তারা তাদের অনিক্স মিসাইল ব্যবহার করেছে৷

অপরদিকে, যুক্তরাজ্যের একটি গবেষণা সংস্থা বলছে, ক্রেমলিন তাদের ভাড়া করা সাইবার যোদ্ধা দিয়ে ইন্টারনেটে ভুল তথ্য ও প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে৷ রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবুর্গ থেকে একটি সাইবার ফার্ম কাজটি করছে বলে তারা দাবি করছে৷

এদিকে, মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি কিয়েভ সফর করেছেন৷ যুদ্ধ শুরুর পর প্রথম সারির মার্কিন কোনো নেতা এই প্রথম কিয়েভ এলেন৷ তিনি সেখানে রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে যেভাবে সাধারণ ইউক্রেনীয় জনগণ রুখে দাঁড়িয়েছে, তার প্রশংসা করেন৷ তিনি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিরও নেতৃত্বের প্রশংসা করেন৷

জেডএ/এআই (এএফপি, রয়টার্স)

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী পায়রা উড়িয়ে ছাত্রলীগের সম্মেলন উদ্বোধন করলেন

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান