মারাদোনার বিদায় আর বার্সেলোনা, ভারত, জার্মানির লজ্জার বছর | বিশ্ব | DW | 26.12.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

খেলাধুলা

মারাদোনার বিদায় আর বার্সেলোনা, ভারত, জার্মানির লজ্জার বছর

২০২০ সালের প্রায় পুরোটাই গেল করোনার গ্রাসে৷ এ বছর মারাদোনাসহ বেশ কয়েকজন কিংবদন্তিকে হারিয়েছে ক্রীড়াঙ্গন৷

২০২০ সালের প্রায় পুরোটাই গেল করোনার গ্রাসে৷ এ বছর মারাদোনাসহ বেশ কয়েকজন কিংবদন্তিকে হারিয়েছে ক্রীড়াঙ্গন৷

২৫ নভেম্বর ফুটবল বিশ্বকে মেনে নিতে হয় দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনার আকস্মিক চিরবিদায়৷

সাফল্য-ব্যর্থতার হিসেবে যত নামই আসুক, বার্সেলোনা, ভারত আর জার্মানি এবং বায়ার্ন আর লেভান্ডোস্কির নাম আসবে সবার আগে৷

এমন নয় যে ফুটবলে বার্সেলোনা বা জার্মানি, কিংবা ক্রিকেটে ভারত এ বছর সবচেয়ে ব্যর্থ৷ বরং উল্টোটা৷ সাফল্যের মানদণ্ড যদি শুধু ট্রফি জেতা বা কোনো দলকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে দেয়া না হয়, তাহলে বার্সা, জার্মানি এবং ভারত এই করোনার বছরেও সফলদের তালিকায় ওপরের দিকে থাকবে অবশ্যই৷ কিন্তু কিছু ব্যর্থতার লজ্জা নতুন পাতলুনের পেছনে বড় একটা ফুটোর মতো৷ ফুটোর কারণে পাতলুনটা যেন চোখেই পড়ে না!

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্নের কাছে বার্সেলোনার আট গোল আর নেশন্স লিগে স্পেনের কাছে জার্মানির  ছয় গোল হজম, কিংবা অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের মাত্র ৩৬ রানে (নয় উইকেটে) গুটিয়ে যাওয়ার লজ্জাটাও ঠিক সেরকম৷ যত ঢাকতে যাবেন, লজ্জা ততই বাড়বে৷ হ্যাঁ, বার্সা বা জার্মানির ভক্তরা বলতেই পারেন, ক্লাব ফুটবলে বড় ব্যবধানের হার আরো আছে৷ মনে করিয়ে দিতেই পারেন জার্মানির কাছে ব্রাজিলের ৮-১ হারের কথা৷ কিন্তু তাতে কি নিজেদের লজ্জা একটুও লাঘব হবে? ভারত-সমর্থকরাও যদি বলেন, গোটা সাতেক ক্যাচ না ফেললে ফলাফল অন্যরকম হতে পারতো, বা যদি মনে করিয়ে দেন টেস্ট ক্রিকেটের সর্বনিম্ন স্কোর (২৬) এখনো নিউজিল্যান্ডের, তাতেও কি এক ইনিংসে এক জনেরও দু অঙ্কের স্কোর না পাওয়ার ট্র্যাজেডি কিংবা কমেডি কেউ ভুলতে পারবে কোনোদিন?

তবে করোনার দাপটে ক্রীড়াঙ্গন যত নিষ্ক্রিয়ই থাকুক,  হান্সি ফ্লিক, বায়ার্ন মিউনিখ আর লিভারপুলের জন্য সাফল্যের স্মৃতি হয়েই থাকবে বছরটা৷ কোচ হিসেবে বায়ার্নে  প্রথম বছরেই এক মৌসুমে পাঁচটা ট্রফি জিতেছেন ফ্লিক৷ লিভারপুল শুধু প্রিমিয়ার লিগ জিতেই মহাখুশি, কারণ এ সাফল্য এসেছে ত্রিশ বছর পরে !

রবার্ট লেভান্ডোস্কির সাফল্য আরো বেশি তাৎপর্যপূর্ণ, আরো গৌরবের৷ এবার পোল্যান্ডের প্রথম ফুটবলার হিসেবে ফিফা বর্ষসেরা হয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের এই ফরোয়ার্ড৷ মেসি, রোনালডোকে ম্লান করে বর্ষসেরা হতে  বায়ার্নকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতিয়েছেন আসর-সর্বোচ্চ ১৫ গোল করে৷ বায়ার্নের বুন্ডেসলিগা ও জার্মান কাপ জয়েও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল তার ৷ গত মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলে ৪৭ ম্যাচে ৫৫ গোলই বলে দেয় মৌসুমটা কী অসাধারণ কেটেছে তার৷

এ বছর অনেক তারকা হারিয়েছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন৷ ২৬ জানুয়ারি হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মারা যান বাস্কেটবল কিংবদন্তি কোবি ব্রায়ান্ট৷ গত ২৫ নভেম্বর ফুটবল বিশ্বকে মেনে নিতে হয় দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনার আকস্মিক চিরবিদায়

এ বছর রাগে-দুঃখে বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন লিওনেল মেসি৷ পরে অবশ্য চুক্তির শর্ত মেনে আশৈশব খেলে আসা ক্লাবে থেকে যেতে হয় তাকে৷ তবে আপাতত বাধ্য হয়ে থেকে গেলেও ২০২১-এ আর্জেন্টাইন সুপারস্টার বার্সেলোনা ছাড়তে পারেন

এসিবি/কেএম

নির্বাচিত প্রতিবেদন