‘মানুষ যত শিক্ষিত তত মানবিক, বাংলাদেশে তার উল্টো′ | পাঠক ভাবনা | DW | 01.05.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাঠক ভাবনা

‘মানুষ যত শিক্ষিত তত মানবিক, বাংলাদেশে তার উল্টো'

হাসপাতালে অনুপস্থিত ডাক্তারের সঙ্গে সংসদ সদস্য হিসেবে মাশরাফির আচরণকে বেশিরভাগ পাঠকই সমর্থন করেছেন৷ তবে ভিন্নমতও উঠে এসেছে ডয়চে ভেলের ফেসবুক পাতায়৷

 মাশরাফিকে সমর্থন করে ডয়চে ভেলের পাঠক সাদ্দাম হোসেন লিখেছেন, ‘‘মাশরাফি তাঁর নিজের ভাষায় কথা বলেছেন৷ ইনিয়ে-বিনিয়ে রং-ঢং করে কথা বলেনি৷ ''

‘‘মাশরাফি কোনো আপত্তিকর ভাষা ব্যবহার করেননি৷ যারা বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে, তারা অন্যায়ের পক্ষে সাফাই গাইছে,''এই মন্তব্য পাঠক শ্রাবন শিকদার আলিফের৷

রিফাত আহমেদ হিরা লিখেছেন, ‘‘সরকারের টাকায় বেতন নেবে, কিন্তু কাজ ফাঁকি দিয়ে প্রাইভেট হাসপাতালে কাজ করবে৷ এটা  বলতে গেলেই খারাপ৷''

পাঠক হাবিবুর রহমান ডাক্তারদের দুর্নীতির বিষয়ে তাঁর ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা লিখেছেন এভাবে, ‘‘আমাদের নারায়ণগঞ্জে একজন চিকিৎসক রোগীর টেস্টের উপর শতকরা ৬০ভাগ কমিশন নেন৷ আমার বড় ভাই ওই ডায়াগনস্টিকের ইনচার্জ থাকায় বিষয়টি আমি জেনেছি৷''

 ‘‘মাশরাফির ভাষার ব্যবহারে কি ভুল? কিছুটা উত্তেজিত হয়েছিলেন তিনি আর এর কারণও কিন্তু ডাক্তার সাহেব নিজেই,'' এই মন্তব্য মো. নবাব হোসেনের৷

‘‘মাশরাফি যা করেছে, খুব ভালো করেছে৷ এখনকার রাজনীতিবিদদের ভাষা অনুযায়ী ঠিকই আছে৷ তাছাড়া উচিত কথা একটু তেতোই হয়,'' এই মন্তব্য রাজীব হোসেনের৷

‘‘জনপ্রতিনিধি হিসেবে মাশরাফি সঠিক আচরণ করেছে,'' মনে করেন রাশেদ রাশু৷


পাঠক নূর মাশরাফিকে সমর্থন করে লিখেছেন, ‘‘অপারেশনের রোগীসহ হাসপাতালের সব রোগী ফেলে যারা বাহিরে সময় কাটায়,  দিনের পর দিন অনুপস্থিত থাকে, তাদের সাথে ভালো ব্যবহারের প্রয়োজন নেই৷''

পাঠক আরিফ সুজন, মাহমুদ শরিফ, দিদার উদ্দিন, আবদুল আলিম, তাপস দেবনাথ, শহিদ আহমেদ, আমির হোসেন, রাহুল হাসনাত, মিজানুর রহমান, আলিম হোসেন, ওমর ফারুকসহ অনেকেই মাশারাফির পক্ষে মত দিয়েছেন৷

পাঠক  জয়ন্ত জয় তো বলছেন, মাশরাফির আরো কঠিন হওয়া উচিত ছিল৷

‘‘মাশরাফি ঠিক আছে৷ মাফ চাওয়ার প্রশ্ন কেন ? লোহাকে লোহা দিয়েই কাটতে হবে, রাবার দিয়ে নয়৷ যারা শাস্তি পেলো, তাদের মুখে যৌক্তিক কোনো উত্তর শুনিনি৷ অন্যায়েরও সীমা আছে৷ তবে ড. তুষারের যুক্তি শুনে মনে হয়েছে, একজন শিক্ষিত মানুষের বোকার মতো যুক্তি,'' এই মতামত লিখে জানিয়েছেন পাঠক আবুল কাশেম৷

তবে ভিন্ন মত এমএন আরসালানের৷ তাঁর মতে, মাশরাফি ভুল করেছেন৷ আর শাহরিয়ার স্বপনের মতে, মাশরাফির ভাষা ঠিক হয়নি, তবে তার কাজটি ঠিক আছে৷ পাঠক হাসান তারিকও মনে করেন, মাশরাফির প্রতিবাদের প্রক্রিয়াটি সঠিক নয়৷

পাঠক শান্ত অধিকারী দুঃখ করে লিখেছেন, ‘‘পৃথিবীর সব দেশের মানুষ যত শিক্ষিত হয়, ততই মানবিক হয়, আর আমাদের দেশে মানুষ যত শিক্ষিত হয়, তার চেয়ে বেশি হয় অমানবিক, অমানুষ আর প্রভুসুলভ হয় আচরণ৷ শুধু ডাক্তার না, সবাই৷''

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা:আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন