মানুষের জান মালের নিরাপত্তা আগে, না পর্যটন শিল্প? | পাঠক ভাবনা | DW | 20.03.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাঠক ভাবনা

মানুষের জান মালের নিরাপত্তা আগে, না পর্যটন শিল্প?

‘‘পর্যটকরা ভোগ্যপণ্যের মতোই ভোগ করছে আদিবাসীদের প্রতিদিনের জীবনযাপন – যেন মানব চিড়িয়াখানা,'' লিখেছেন পার্বত্য চট্টগ্রামের ব্লগার পাইচিংমং মারমা৷ লেখাটি নিয়ে পাঠকরা নানা মন্তব্য করেছেন ডয়চে ভেলের ফেসবুক পাতায়৷

 লেখক পাইচিংমং মার্মাকে লক্ষ্য করে পাঠক চৌধুরী রায়হান লিখেছেন, ‘‘ভাই পাইচিংমং মারমা, আমি খাগড়াছড়ি অনেকদিন ঘুরে এসেছি৷ তারা যে স্বাধীনতা ভোগ করে সেটা কোনো অংশেই বাঙালিদের চেয়ে কম নয়৷ কোন যুত্তিতে আদিবাসী সম্মোধন করেন ওদেরকে? আদিবাসীর অর্থ কী? ওরা সবাই হচ্ছে বহিরাগত বারমিজ উপজাতি৷''

‘‘দেশের স্বাধীনতা, সার্ভবৌমত্ব রক্ষায় সেনাবাহিনীকে আরও সজাগ থাকতে হবে৷ বিদেশি ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় আরও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ সময়ের দাবি৷ সাথে পাহাড়ের জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তায় আরও আপসহীন হতে হবে৷'' এই মন্তব্য পাঠক হাসান উল বান্না জীবনের৷

এদিকে পাঠক জুনায়েদ আলী জিশান বিষয়টি নিয়ে তাঁর বিস্তারিত মতামত জানিয়েছেন এভাবে, ‘‘সবকিছুরই ভালো আর খারাপ দিক রয়েছে৷ এখানে শুধু নেতিবাচক দিকটা তুলে ধরা হয়েছে৷ লেখক প্রথমদিকে যে বাজার অর্থনীতির খারাপ দিক তুলে ধরার চেষ্টা করেছেনর শেষের দিকে এসে কৃষি গুদাম চেয়ে দ্বিমুখীতার পরিচয় দিয়েছেন৷ যে রাস্তায় সেনা রসদ গেছে, সেই রাস্তায় পাহাড়ি নৃগোষ্ঠীদের চিকিৎসা, শিক্ষা ও প্রযুক্তিও গেছে৷ তবে এমনটা নয় যে পর্যটনের কারণে খারাপ কিছু হয়নি৷ টাকার লোভে কেউ তার মা-বোনকে অন্যের বিছানায় পাঠালে রাষ্ট্রের দোষ কোথায়? দেশকে নিজের, রাষ্ট্রযন্ত্রগুলোকে নিজের মনে করে ভুলত্রুটি গুলোকে শুধরানোর চেষ্টা করা যেতে পারে৷'' ‘‘প্রতি বছর বৈশাখ-জৈষ্ঠ্য মাস, বাংলায় যাকে ‘মধুমাস' বলা হয়, সেই সময়ে খাগড়াছড়ির রাস্তায় উপচে পড়া ফল পচতে থাকে কেবলমাত্র একটি হিমাগারের অভাবে৷ দরিদ্র জুমচাষী ফসলের দাম পায় না৷ স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জাগে, কৃষিশিল্পের বিকাশ না করে, মানুষের জান মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে কেন পর্যটন শিল্পই বিকাশ করতে হবে? আর কোনো শিল্প কি গড়ে উঠতে পারে না সেখানে? কেন এলাকার শিল্প সম্ভাবনা যাচাই না করে হুট করে রাষ্ট্রীয় পরিকল্পনায় খাগড়াছড়িতে বিশেষ পর্যটন গড়তে গেল সরকার?'' সরকারের কাছে এই প্রশ্ন রেখেছেন পাঠক শাহীনূর আলম৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন