মাদক সম্রাটকে ধরতে ৫০০ পুলিশ, ২২ হেলিকপ্টার! | বিশ্ব | DW | 25.10.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

কলম্বিয়া

মাদক সম্রাটকে ধরতে ৫০০ পুলিশ, ২২ হেলিকপ্টার!

২২ হেলিকপ্টার নিয়ে ৫০০ পুলিশ সদস্য এক জঙ্গলে অভিযান চালিয়ে আটক করেছেন এক মাদক সম্রাটকে৷ শুধু তাই নয়, তাকে গ্রেপ্তারের খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন খোদ দেশটির প্রেসিডেন্টও৷

কলম্বিয়ার ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ মাদক সম্রাট গ্রেপ্তার

কলম্বিয়ার ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ মাদক সম্রাট গ্রেপ্তার

বলছি দাইরো আন্তোনিও উসুগার কথা৷ কলম্বিয়ার ‘মোস্ট ওয়ান্টেড' মাদক সম্রাট তিনি৷ দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী শনিবার তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে৷ তিনি কলম্বিয়ার সবচেয়ে বড় মাদকপাচারকারী৷ 

উসুগা অবশ্য ‘ওটোনিয়েল' হিসেবেই বেশি পরিচত৷ ধারণা করা হয়ে যে তিনি সহিংস ক্লান দ্যেল গলফো গোষ্ঠীর প্রধান, যেটি ঘন জঙ্গলের মধ্য দিয়ে কোকেন পাচারের বড় পথগুলো নিয়ন্ত্রণ করে৷

কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান ডুকে শনিবারের গ্রেপ্তারের ঘটনাকে পাবলো এসকোবারের পতনের সঙ্গে তুলনা করেছেন৷ ১৯৯৩ সালে পুলিশের গুলিতে নিহত হন কলম্বিয়ার কুখ্যাত এই মাদক সম্রাট৷

ডুকে বলেন, ‘‘আমাদের দেশে চলতি শতকে মাদকপাচারকারীদের উপর সবচেয়ে বড় আঘাত এটি৷''

‘‘ওটোনিয়েল শুধু বিশ্বের সবচেয়ে বড় ত্রাসসৃষ্টিকারী মাদক সম্রাটই নয়, একজন হত্যাকারীও যে পুলিশ, সেনা সদস্য এবং স্থানীয় অ্যাক্টিভিস্টদের খুন করেছে,'' যোগ করেন তিনি৷

কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, ‘‘তাকে গ্রেপ্তারে দেশটির সামরিক ইতিহাসে জঙ্গলে সবচেয়ে বড় অভিযান পরিচালনা করা হয়৷''

উসুগার মাদকপাচারকারী দলের অন্য সদস্যদের আত্মসমর্পণের আহ্বানও জানিয়েছেন ডুকে৷ অন্যথায়, তাদের উপর আইনের পুরোপুরি প্রয়োগ করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

মাদক পাচার, হত্যা, চাঁদাবাজি, অপহরণসহ নানা অভিযোগ রয়েছে কলম্বিয়ার এই মাদক সম্রাটের বিরুদ্ধে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ড্রাগ এনফোর্সমেন্ট কর্তৃপক্ষের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড' তালিকায় রয়েছেন তিনি৷

উসুগাকে গ্রেপ্তার বা বিচারের মুখোমুখি করার উপযুক্ত তথ্য কেউ দিলে তাকে ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা ২০০৯ সালে দিয়েছিল মার্কিন কর্তৃপক্ষ৷

ভিডিও দেখুন 00:50

কোকা উৎপাদনে কলম্বিয়ার রেকর্ড

 

৫০ বছর বয়সি উসুগার জন্ম কলম্বিয়ার নেকোক্লিতে৷ প্রত্যন্ত অঞ্চলের এক পরিবারের নয় সন্তানের মধ্যে সপ্তম তিনি৷ আঠারো বছর বয়সে একটি মার্কসবাদী গেরিলা গোষ্ঠীর সদস্য হয়েছিলেন তিনি৷ পরবর্তীতে অবশ্য সেটি ভেঙে যায়৷

নব্বইয়ের দশকে কৃষকদেরকে গেরিলাদের কাছ থেকে রক্ষায় ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে উসুগাকে৷ সেসময় মাদক পাচারেও জড়িয়ে পড়েন তিনি৷

তাকে গ্রেপ্তারে এর আগেও একাধিক অভিযান চালিয়েছে পুলিশ৷ তবে সাফল্য এসেছে শনিবার৷ ২২ হেলিকপ্টার নিয়ে ৫০০ পুলিশ সদস্যের অভিযানে গ্রেপ্তার হন তিনি৷

এআই/কেএম (এএফপি, এপি)